সংবাদ সম্মেলন করেই মে দিবস পালন করলো শ্রমিক দল | daily-sun.com

সংবাদ সম্মেলন করেই মে দিবস পালন করলো শ্রমিক দল

ডেইলি সান অনলাইন     ১ মে, ২০১৮ ১৬:৩১ টাprinter

সংবাদ সম্মেলন করেই মে দিবস পালন করলো শ্রমিক দল

 

মে দিবস উপলক্ষে প্রথমে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি। সেখানে পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের নীচ থেকে শান্তিনগর ফ্লাইওভার পর্যন্ত র‌্যালি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

তাতেও পুলিশের অনুমতি মেলেনি। শেষে নয়াপল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় সংবাদ সম্মেলন করেই মে দিবস পালন করলো বিএনপির অঙ্গসহযোগী সংগঠন জাতীয়াতাবদী শ্রমিক দল।


মঙ্গলবার (১ মে) দুপুরে অনুষ্ঠিত এই সংবাদ সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন শ্রমিক দলের প্রধান উপদেষ্টা বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, শ্রমিক দল সব ধরনের নিয়মনীতি অনুসরণ করে সমাবেশ করার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল, তারপরও কেন অনুমতি দেয়া হলো না? সরকার বিরোধী সংগঠনগুলোর প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করছে।


বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা বলেন, আজ শ্রমিক দলকে এ ধরনের আন্তর্জাতিক দিবসে শোভাযাত্রা করতে দেয়া হলো না। আমাদের অফিসের সামনে (নয়াপল্টন) দিয়ে মিছিল যাচ্ছে ট্রাকে করে, বিভিন্ন এলাকা থেকে মিছিল আসছে, মিরপুর এলাকা থেকে মিছিল আসছে, সায়েদাবাদ এলাকা থেকে মিছিল আসছে প্রেসক্লাবের সামনে। সেটা যদি সম্ভব হয়, সেটা যদি অন্যায় না হয়, বেআইনি না হয়, তাহলে নয়াপল্টন থেকে মিছিল প্রেসক্লাবে যেতে এত বাধা কেন? এখানে তো আইনিভাবে এখনো বাকশাল কায়েম হয় নাই।


তিনি বলেন, বাংলাদেশের আজকে সবাই মে দিবস উদযাপন করছে রাষ্ট্রীয়ভাবে। প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে ছিলেন সেটার জন্য রাষ্ট্রপতি সেখানে বক্তব্য রাখবেন। শ্রমমন্ত্রীর নেতৃত্বে মিছিল হয়েছে। সব শ্রমিক সংগঠন মিছিল করছে, মিটিং করছে, করতে পারবে না শুধু জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল। কী অপরাধ? অপরাধ হলো শ্রমিক দল শহীদ জিয়ার আদর্শে উদ্দীপ্ত বেগম জিয়ার খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ এবং এই সংগঠনটি শ্রমজীবী মানুষের আদর্শে আদর্শিত।


নজরুল ইসলাম খান বলেন, বাংলাদেশ আইএলও এবং আন্তর্জাতিক ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য। আইএলও’র সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ সংস্থাটির কনভেশন-৮৭ বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। যেখানে ফ্রিডম অব অ্যাসোসিয়েশন নিশ্চিত করার কথা, সেখানে আজকে আমাদেরকে সেটা করতে দেয়া হলো না।


শ্রমিক দলের সাবেক এই সভাপতি আরও বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য হিসেবে নিশ্চয়ই আমরা কখন, কোন প্রোগ্রাম করি সেটা আমাদের জানাতে হয়। এই যে আমরা প্রোগ্রাম করতে পারলাম না, কেন পারলাম না সেটাও আমাদের তাদের জানাতে হবে এবং আমরা অবশ্যই জানাব।’


অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ, শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. আনোয়ার হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নাসিম।

 


Top