পাসপোর্ট সারেন্ডার করে তারাই, যারা বিদেশিদের বিয়ে করে নাগরিকত্ব নেন: রিজভী | daily-sun.com

পাসপোর্ট সারেন্ডার করে তারাই, যারা বিদেশিদের বিয়ে করে নাগরিকত্ব নেন: রিজভী

ডেইলি সান অনলাইন     ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:৪৮ টাprinter

পাসপোর্ট সারেন্ডার করে তারাই, যারা বিদেশিদের বিয়ে করে নাগরিকত্ব নেন: রিজভী

 

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, তারেক রহমানের পাসপোর্ট হাইকমিশনে জমার বিষয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী উড়ো, অবান্তর ও বিভ্রান্তিমূলক কথা বলেছেন।

তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।


সোমবার (২৩ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুমকি দেন রুহুল কবির রিজভী।


তিনি বলেন, আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি- তারেক রহমান লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনে যদি তার বাংলাদেশি পাসপোর্ট জমা দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনারা সেটি দেখান। হাইকমিশন তো সরকারের অধীনে, তাদের সেটি দেখাতে বলুন।


রিজভী বলেন, নিজ দেশের পাসপোর্ট জমা দেয়া আত্মা বিক্রির শামিল। পাসপোর্ট সারেন্ডার করে তারাই, যাদের ছেলেমেয়েরা বিদেশিদের বিয়ে করে নাগরিকত্ব নেন। 


তিনি আরও বলেন, জিয়া পরিবারের কেউ বিদেশে বিয়ে করেননি। তারা পৃথিবীর কোনো দেশের নাগরিকত্বও নেননি।


বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, জিয়া পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশের মাটি, পানি ও জলবায়ুর সন্তান। সরকারের চক্রান্তে মিথ্যা মামলায় পরিণতি কী হবে সেটি নিয়ে কোনো চিন্তা না করে কিছুদিন আগে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে এসেছেন বেগম খালেদা জিয়া। দেশনেত্রীর দেশে ফিরে আসার পর তাকে দেয়া হয় সরকারি ফরমানে প্রতিহিংসার সাজা। এখন কারাবন্দি থেকে অমানবিক জুলুম সহ্য করে যাচ্ছেন। অথচ দেশনেত্রী বিদেশে গিয়েও সেখানে থেকে যাওয়ার চিন্তা করেননি। দেশনেত্রীর এই ভূমিকাই হচ্ছে জাতীয়তাবাদী দেশপ্রেমিকের ভূমিকা।


তিনি বলেন, পৈশাচিক একদলীয় শাসনের বর্বর আস্ফালনে আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার নামে যাতনা দিচ্ছে জনগণকে। যারা দেশের জনগণের টাকা লুটপাট করে বিদেশে পাচার করে, বেগম পল্লী বানিয়ে গোটা পরিবারকে সেখানে প্রতিপালন করে, তারা আবার কিসের বাংলাদেশি?


পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন এবং মন্ত্রিত্ব টিকিয়ে রাখতে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করেছেন বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।


তিনি বলেন, আসলেই সংগঠন হিসেবে আওয়ামী লীগ ভিত্তিহীন, কাল্পনিক ও অনর্গল মিথ্যা বলার যে একটি ‘সেন্টার অব এক্সসেলেন্স’ সেটি আবারও প্রমাণ করল।


উল্লেখ্য, গত শনিবার লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মানে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘লন্ডনে হাইকমিশনে নিজের পাসপোর্ট জমা দিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বাংলাদেশের নাগরিকত্ব ছেড়েছেন।’


তিনি আরও বলেন, ‘২০১২ সালে তারেক জিয়া তার বাংলাদেশি পাসপোর্ট লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনে জমা দিয়ে তার বাংলাদেশি নাগরিকত্ব সারেন্ডার করেছে। সে কীভাবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হয়?’


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আতাউর রহমান ঢালী, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহদপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমদ প্রমুখ।

 


Top