প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বাবার পরিকল্পনায় ছেলে খুন | daily-sun.com

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বাবার পরিকল্পনায় ছেলে খুন

ডেইলি সান অনলাইন     ২২ এপ্রিল, ২০১৮ ১৫:২১ টাprinter

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বাবার পরিকল্পনায় ছেলে খুন

 

প্রতিবেশির সাথে তার বাবার পূর্ব শত্রুতার জেরে নির্মমভাবে প্রাণ দিতে হলো ১২ বছর বয়সের কিশোর আউসারকে। তাও নিজ পিতার পরিকল্পনায়ই।

রবিবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মুস্তাক আহমেদ এক সংবাদ সম্মেলনে চাঞ্চল্যকর এ তথ্য জানান। 


তিনি বলেন, গত ১৭ এপ্রিল রাত ১০টার দিকে পানি আনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় কিশোর আউসার। পরদিন সন্ধ্যায় বাড্ডার পূর্ব পরদীয়ার একটি ধানক্ষেত থেকে আউসারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় আউসারের বাবা জাহিদ কয়েক জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।


হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে আউসারের বাবা জাহিদ ওরফে জাহাঙ্গীর (৫০) নিজেই সন্তানকে খুন করার পরিকল্পনা করেন। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিও কেনেন এই পাষণ্ড পিতা। তারপর সহযোগী আব্দুল মজিদকে (২৭) দিয়ে ছেলেকে খুন করান তিনি। 


মুস্তাক আহমেদ বলেন, প্রযুক্তিগত সহায়তা ও পারিপার্শ্বিক সাক্ষ্য বিবেচনায় ২০ এপ্রিল হত্যাকারী মজিদকে (২৭) গ্রেফতার করে পুলিশ। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মজিদ জানায়, আউসারের পিতা জাহিদের পরিকল্পনা ও নির্দেশেই সে আউসারকে খুন করেছে। মজিদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক ২১ এপ্রিল আউসারের বাবা জাহিদকেও গ্রেফতার করা হয়।


হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন আব্দুল মজিদ।


মজিদের স্বীকারোক্তি থেকে জানা যায়, আউসারের পিতা জাহিদের সাথে তার প্রতিবেশী হেলাল উদ্দিনের পারিবারিক শত্রুতা ছিল। এছাড়া সিএনজিচালিত অটোরিকশা জমা বাবদ ৮শ’ টাকা জমা না দেওয়ার কারণে আব্দুল জলিল নামের এক ব্যক্তির সাথেও জাহিদের শত্রুতা ছিল। এই শত্রুতার কারণে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতেই নিজ সন্তান আউসারকে খুন করে হত্যা মামলা প্রতিপক্ষের উপর চাপিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করে জাহিদ। পরিকল্পনা অনুযায়ী ঘটনার দিন একটি ছুরিও কেনেন তিনি। এরপর তার নির্দেশে রাতে আউসারকে ডেকে নিয়ে শ্বাসরোধ এবং ছুরিকাঘাত করে খুন করেন মজিদ।

 


Top