ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফ বৈঠক: জাল মুদ্রা ও সীমান্ত রক্ষীদের ওপর হামলার প্রসঙ্গ তুলবে ভারত | daily-sun.com

ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফ বৈঠক: জাল মুদ্রা ও সীমান্ত রক্ষীদের ওপর হামলার প্রসঙ্গ তুলবে ভারত

ডেইলি সান অনলাইন     ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১৯:০৭ টাprinter

ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফ বৈঠক: জাল মুদ্রা ও সীমান্ত রক্ষীদের ওপর হামলার প্রসঙ্গ তুলবে ভারত

 

আগামী সোমবার (২৩ এপ্রিল) থেকে ঢাকায় শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্ত রক্ষাবাহিনীর সপ্তাহব্যাপী সম্মেলন। সম্মেলনে ভারতের পক্ষ থেকে জাল ভারতীয় মুদ্রা পাচার এবং ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীদের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলার প্রসঙ্গ তোলা হবে বলে জানা গেছে।


২৩ থেকে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত এই সম্মেলনে ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ)-এর প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন সংস্থাটির মহাপরিচালক কে কে শর্মা। অন্যদিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) নেতৃত্বে থাকছেন এর প্রধান মেজর জেনারেল আবুল হোসেন। ঢাকায় বিজিবি সদর দফতরে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।


কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সীমান্তের ওপার থেকে অব্যাহত জাল মুদ্রা আসা এবং বিএসএফ সদস্যদের ওপর আন্ত:সীমান্ত সন্ত্রাসীদের হামলার বিষয়টি তুলবে বিএসএফ।


সূত্র জানায়, চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত ১৩.৬৬ লাখ রুপি মূল্যের জাল ভারতীয় মুদ্রা উদ্ধার করা হয়েছে। গত বছর এর পরিমাণ ছিলো ৬৮.৯৬ লাখ রুপির মতো।


গত বছর সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাসীদের হামলায় দুই বিএসএফ সদস্য নিহত ও ১২২ জন আহত হয়। ২০১৬ সালে ১০৯ বিএসএফ সদস্য আহত হয় বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।


একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, এগুলো ভারত এবং বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে নিরাপত্তার জন্য বড় উদ্বেগের বিষয়।

এসব ঘটনা কমিয়ে এনে বন্ধ করার ব্যাপারে ভালো কোন সমাধান খোঁজা হবে দুই বাহিনীর সম্মেলনে।


ভারতীয় প্রতিনিধি দলে বিএসএফ’র পাশাপাশি পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণায় এবং মাদক-বিরোধী দফতরের কর্মকর্তারা থাকবেন। সম্মেলনে গরু চোরাচালান, অবৈধ অভিবাসন ও মানবপাচার, সীমান্ত খুঁটি মেরামতসহ সীমান্ত-সংশ্লিষ্ট অন্যান্য প্রসঙ্গে আলোচনা হবে।


অন্যদিকে, সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী নিহত ও আহত হওয়া এবং ভারত থেকে বাংলাদেশে মাদক পাচার প্রসঙ্গ তুলবে বিজিবি।


সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তে গড়ে তোলা ‘অপরাধমুক্ত জোন’-এর অগ্রগতি নিয়েও দুই বাহিনী আলোচনা করবে।


ডিজি পর্যায়ের আসন্ন ষান্মাসিক সম্মেলনটি হবে দুই পক্ষের মধ্যে এ ধরনের ৪৬তম সংলাপ। এর আগে ২০১৭ সালের অক্টোবরে নয়া দিল্লিতে আলোচনায় বসে দুই পক্ষ।


বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ৪,০৯৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে।


- সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর ডট কম

 


Top