রাঙামাটিতে অপহৃত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রী খাগড়াছড়িতে মুক্ত | daily-sun.com

রাঙামাটিতে অপহৃত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রী খাগড়াছড়িতে মুক্ত

ডেইলি সান অনলাইন     ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:০৭ টাprinter

রাঙামাটিতে অপহৃত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রী খাগড়াছড়িতে মুক্ত

 

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) সহযোগী সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও কেন্দ্রীয় সদস্য দয়া সোনা চাকমাকে অপহরণের ৩১ দিন পর সন্ধান পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) রাত পৌনে ৮টার দিকে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের মধুপুর এলাকায় অপহৃতদের অভিভাবক ও স্থানীয় মুরব্বীদের জিম্মায় তাদের মুক্তি দেয়া হয়।

ইউপিডিএফ'র সংগঠক মাইকেল চাকমা বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।


খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহাদাত হোসেন টিটো বলেন, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রী মুক্তি পেয়েছে বলে শুনেছি।


প্রসঙ্গত, ১৮ মার্চ সকাল ৯টার দিকে রাঙ্গামাটির কতুকছড়ি বাজার আবাসিক এলাকার একটি বাড়িতে ওই দুই নারী নেত্রীসহ যুব ফোরামের সভাপতি ধর্মসিং চাকমা ও কুনেন্দু চাকমা খাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ সময় ৮-১০ জন অস্ত্রধারী হামলা চালায়। দুর্বৃত্তরা ওই বাড়িটি পুড়িয়ে দেয়। দুর্বৃত্তরা গুলি ছুড়লে ধর্মসিংয়ের পায়ে লাগে। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হয়।


অপহরণের জন্য ইউপিডিএফ ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন প্রতিপক্ষ ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিককে দায়ী করে আসছিল।


এর আগে ১৯৯৬ সালে নারী নেত্রী কল্পনা চাকমা অপহৃত হন। এখন অব্দি তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। মন্টি ও দয়াকেও একইভাবে অপহরণ করা হয়েছে। তাদের ফিরে পাওয়ার আশাও দিনকে দিন ক্ষীণ হয়ে আসছে।

 


Top