গাজীপুর-খুলনায় ভোটের ৭ দিন আগে সেনা চায় বিএনপি | daily-sun.com

গাজীপুর-খুলনায় ভোটের ৭ দিন আগে সেনা চায় বিএনপি

ডেইলি সান অনলাইন     ১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:১৬ টাprinter

গাজীপুর-খুলনায় ভোটের ৭ দিন আগে সেনা চায় বিএনপি

 

আসন্ন গাজীপুর ও খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণের ৭ দিন আগে থেকে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। দলীয় প্রতীকে এই দুই সিটিতে ভোট হবে আগামী ১৫ মে।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) সকালে আগারগাঁও নির্বাচন কমিশনের কার্যালয় নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সঙ্গে এক বৈঠকে এ দাবি জানায় বিএনপির ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল। দলটির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ৬ সদস্যদের ওই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন।


লিখিত দাবিনামায় বলা হয়, দুই সিটি নির্বাচনের সাত দিন আগে থেকে নির্বাচনী এলাকায় টহলসহ প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে সেনা মোতায়েন করতে হবে। একই সঙ্গে গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদকে প্রত্যাহারেরও দাবি জানান তারা। তাদের দাবি, অনিয়মের কারণে ২০১৬ সালে কমিশন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদকে প্রত্যাহার করেছিল। তিনি ২০১১ সালের ৬ জুলাই সেই সময়ের বিরোধীদলীয় চিপ হুইপ ও বিএনপি নেতা জয়নুল আবদীন ফারুককে পিটিয়েছিলেন বলেও দাবিনামায় উল্লেখ করা হয়েছে।


এর আগে বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচন বিষয়ে কথা বলতে বিএনপির প্রতিনিধি দলটি নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে বৈঠকে বসেন।


প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ড. আবদুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

 

অপরদিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্ব কমিশনের অন্যান্য সদস্য ও ইসি সচিব হেলালুদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।


এর আগে গত বছরে অক্টোবরে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করে ২০ দফা দাবি তুলে ধরেছিল বিএনপি।

 


Top