হুইপ আতিককে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে | daily-sun.com

হুইপ আতিককে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

ডেইলি সান অনলাইন     ১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:০৪ টাprinter

হুইপ আতিককে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

 

অবৈধভাবে বাড়ি নির্মাণ ও মোটা অংকের টাকা অর্জনের অভিযোগে শেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে নয়টা থেকে সেগুনবাগিচার দুদক কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। হুইপ আতিককে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন দুদকের উপ-পরিচালক কে এম মিছবাহ উদ্দিন।


এর আগে গত ৫ এপ্রিল এম মিছবাহ উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে হুইপ আতিককে তলব করা হয়েছিল। তলবে সাড়া দিয়ে তিনি সকালে দুদক কার্যালয়ে আসেন।


দুদক সূত্র জানায়, হুইপ আতিকের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে পাসপোর্ট অফিস তিন আনি বাজারে বিলাসবহুল বাড়ি ক্রয়, গ্রামের বাড়ি কামারিয়ার ৩০ একরের বাগান বাড়ি তৈরি, ঢাকার বসুন্ধরা ও বনশ্রীতে দুটি প্লট, ধানমন্ডি ও গুলশানে দুটি ফ্ল্যাট, নামে-বেনামে শত কোটি টাকা অর্জন, নিয়োগ বাণিজ্য, টিআর-কাবিখা, স্কুল-কলেজের এমপিও থেকে মোটা অংকের টাকা অর্জনসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।


এদিকে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে খুলনা-২ আসনের সরকারদলীয় এমপি মিজানুর রহমান মিজানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল সোমবার (১৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ৩টা পর্যন্ত টানা ৫ ঘণ্টা সেগুনবাগিচার দুদক কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দুদকের উপ-পরিচালক মো. মঞ্জুর মোর্শেদ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।


দুদকের অভিযোগে বলা হয়, মিজানুর রহমান ক্ষমতার অপব্যবহার করে খুলনা সিটি করপোরেশন ও অন্যান্য সরকারি অফিসের ঠিকাদারী, নিজ পরিবারের সদস্যদের নামে নামমাত্র কাজ করে বাকি টাকা আত্মসাৎ এবং মাদকের ব্যবসা করে শত শত কোটি টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন।


এরপর গত ৭ মার্চ থেকে দুদক খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের এই সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করে।


এছাড়া গত ২১ মার্চ দুদকের পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদিন শিবলী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হা-মীম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে আজাদকে ৩ এপ্রিল দুদকে তলব করা হয়েছিল। তবে ওই দিন তিনি দুদকে উপস্থিত না হয়ে হাজিরার জন্য চিঠির মাধ্যমে সময় আবেদন করেন। তার বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার ট্যাক্স-ভ্যাট ফাঁকি ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে।


এছাড়াও জাল স্বাক্ষরের মাধ্যমে ১৩৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুনকে (বি এইচ হারুন) দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) তলব করা হয়। গত ৩ এপ্রিল দুদকের উপ-পরিচালক শামসুল আলম স্বাক্ষরিত চিঠিতে ১১ এপ্রিল জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে দুদকে তলব করা হয়েছিল।


আরও পড়ুন:

 

অবৈধ সম্পদ অনুসন্ধানে এমপি মিজানকে ৫ ঘণ্টা দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

 

ফারমার্স ব্যাংক কেলেঙ্কারি: চিশতী ও তার ছেলেসহ গ্রেফতার ৪

 

বিএনপির ৮ নেতার ১২৫ কোটি টাকার লেনদেন অনুসন্ধানে দুদক

 

অবৈধ অর্থ অর্জন: এবার এমপি হারুনকে দুদকে তলব

 

দুদকে হাজির না হয়ে সময় চাইলেন এ কে আজাদ

 


Top