রাশিয়ায় পাশাপাশি যুদ্ধ করবে পাকিস্তান ও ভারতের সেনারা | daily-sun.com

রাশিয়ায় পাশাপাশি যুদ্ধ করবে পাকিস্তান ও ভারতের সেনারা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:২৩ টাprinter

রাশিয়ায় পাশাপাশি যুদ্ধ করবে পাকিস্তান ও ভারতের সেনারা

 

পরস্পরের বিরুদ্ধে নয়, এই প্রথম কাধে কাধ মিলিয়ে পাশাপাশি যুদ্ধ করবে পাকিস্তান ও ভারতের সেনারা। আগামী আগস্টে রাশিয়ায় এই যুদ্ধ বাধবে।

সন্ত্রাসীদের নির্মূল, সন্ত্রাসী নেটওয়ার্ক ধ্বংস এবং সম্ভাব্য হুমকি মোকাবেলার জন্য যুদ্ধপ্রস্তুতি জোরদারের লক্ষ্যে এই পাতানো যুদ্ধের আয়োজন করা হয়েছে।


সূত্র জানায়, এর আগে উপ-মহাদেশের দুই চির-প্রতিদ্বন্দ্বী দেশের জনওয়ানরা জাতিসংঘ শান্তি রক্ষা মিশনে নিরাপত্তা প্রদান বা কনভয় প্রটেকশনের ক্ষেত্রে একত্রে কাজ করেছে। কিন্তু দুই প্রবল শত্রু, যাদের মধ্যে যুদ্ধের ইতিহাস রয়েছে, যাদের সম্পর্কও অত্যন্ত তিক্ত, তারা এই প্রথম সামরিক মহড়ায় একসঙ্গে অংশ নিতে যাচ্ছে।


সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও)-র আয়োজনে ‘শান্তি মিশন ২০১৮’ নামে এই মহড়ার আয়োজন করা হচ্ছে। পশ্চিম-মধ্য রাশিয়ার চেলিয়াবিনস্কে আগস্টের শেষ দিকে মহড়াটি শুরু হয়ে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত চলবে।


উরাল পর্বতমালার কাছে চেলিয়াবিনস্কে ২০২০ সালে এসসিও সদস্য দেশগুলোর কাউন্সিল প্রধানদের সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হবে। একই বছর এখানে ব্রিকস নেতাদের সম্মেলন হওয়ারও কথা রয়েছে।


ইউরেশিয়া অঞ্চলে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামরিক সহযোগিতা, সমন্বয় ও সংহতির লক্ষ্যে ২০০১ সালে চীন, কাজাখস্তান, কিরঘিজিস্তান, রাশিয়া ও তাজিকিস্তানকে নিয়ে এসসিও গঠিত হয়। বর্তমানে পাকিস্তান, ভারত ও উজবেকিস্তানসহ এই সংস্থার ৮টি পূর্ণ সদস্য রয়েছে। এর বাইরে চারটি পর্যবেক্ষক ও ছয়টি সংলাপ অংশীদার রাষ্ট্র রয়েছে।


দুই বছর পরপর অনুষ্ঠিত ‘পিস মিশন মহড়া’র এবারের সংস্করণটি পঞ্চম। ২০১৭ সালের জুনে এসসিও’র সদস্য পদ লাভের পর এই প্রথম পাকিস্তান ও ভারত মহড়াটিতে অংশ নিচ্ছে।


এসসিও’র সদস্যদের জন্য এই মহড়ায় অংশ নেয়া বাধ্যতামূলক। আরো মজার বিষয় হলো এসসিও’র রিজিওনাল এন্টি-টেরোরিজম স্ট্রাকচারেরও সদস্য ভারত ও পাকিস্তান। এই ব্যবস্থায় দেশগুলো সন্ত্রাস সম্পর্কিত তথ্য বিনিময় করে থাকে।


স্বাগতিক দেশ হিসেবে রাশিয়া জনবল, সরঞ্জাম ও অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ব্যাপকভাবে এই মহড়ায় অংশ নেবে। চীনের ৫০০-র মতো সেনা  অংশ নিবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তুলনামূলক ছোট আকারের সেনাদল পাঠাবে ভারত ও পাকিস্তান।


রাশিয়ায় ২১ আগস্ট শেষ হচ্ছে মেগা ডিফেন্স এক্সপো। তারপরই চেলিয়াবিনস্কে মহড়া শুরু হবে।

 

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর ডট কম

 


Top