ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ: বাস চালকসহ পাঁচ জন রিমান্ডে | daily-sun.com

ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ: বাস চালকসহ পাঁচ জন রিমান্ডে

ডেইলি সান অনলাইন     ১০ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:৪৮ টাprinter

ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ: বাস চালকসহ পাঁচ জন রিমান্ডে

 

ঢাকার ধামরাইয়ে চলন্ত বাসে এক পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করা মামলায় বাসটির চালক বাবু মল্লিকসহ পাঁচ জনকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) ঢাকার চিপ জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেট আতিকুর রহমান শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।


অপর চার আসামি হলেন-শ্রী বলরাম, সোহেল, আব্দুল আজিজ ও মকবুল হোসেন।


এর আগে সোমবার ঢাকার চিপ জুডিসিয়াল ম্যাজিট্রেট মনিকা খানের আদালতে ধর্ষণের বিষয়ে জানিয়ে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন পোশাক শ্রমিক। 


অপরদিকে গ্রেফতার বাসের চালক বাবু মল্লিকসহ পাঁচ আসামিকে এদিন আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ধামরই থানার পরিদর্শক (ওসি-অপারেশন) জাকারিয়া। আদালত রিমান্ড শুনানির জন্য (মঙ্গলবার) দিন ধার্য করেন।


ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মলয় সাহা ভাষ্যমতে, রবিবার (৮ এপ্রিল) রাতে কারখানায় কাজ শেষে ধামরাইয়ের ইসলামপুর থেকে গতরাতে ‘যাত্রীসেবা’ নামের একটি লোকাল বাসে ওঠেন ওই পোশাক শ্রমিক। বাসটি ধামরাইয়ের কালামপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে ৫ জন যাত্রী ব্যাতীত সবাই নেমে যায়। এরপর বাসের হেলপার বাসের দরজা বন্ধ করে দেয় এবং চালক বাসটি মহাসড়কে উদ্দেশ্যবিহীন ভাবে চালাতে শুরু করে। এসময় চালকসহ ৫ জনের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হন ওই নারী। এসময় ওই নারীর ডাক ও চিৎকারে একটি পেট্রোল পাম্পের কর্মীরা বিষয়টি বুঝতে পেরে ধামরাই থানা পুলিশকে খবর দেন।

 
সংবাদ পাওয়ার পর পুলিশের চারটি পৃথক দল বাসটি ধাওয়া করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের কচমচ এলাকা থেকে আটক করে ও ভুক্তভোগী নারী এবং চালকের সহযোগীসহ যাত্রীবেশী ৫ জনকে আটক করে পুলিশ।

 


Top