গায়ের রঙ ফর্সা করতে শিশুর উপর নৃশংস অত্যাচার | daily-sun.com

গায়ের রঙ ফর্সা করতে শিশুর উপর নৃশংস অত্যাচার

ডেইলি সান অনলাইন     ২ এপ্রিল, ২০১৮ ১৮:১৪ টাprinter

গায়ের রঙ ফর্সা করতে শিশুর উপর নৃশংস অত্যাচার

 

টিভিতে গায়ের রং ফর্সা হওয়ার কতই-না বিজ্ঞাপন দেখা যায়। কোনো কোনো বিজ্ঞাপনে ১৫ দিন কেউবা আবার ৩০ দিনের মধ্যে রং ফর্সা হওয়ার গ্যারান্টিও দেন।

হয়তো সব চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে এক মা শিশুর রং ফর্সা করার জন্য এক নৃশংস পদ্ধতি বেছে নিলেন। আর তারই ফল ভুগতে হলো মধ্যপ্রদেশের ৫ বছরের এক শিশুকে। সন্তানকে ফর্সা করতে এক মায়ের এমন কাজ গণমাধ্যমে উঠে এসেছে। এ সংবাদ প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এবেলা।

 

 

প্রথম থেকেই শিশুর গায়ের রং পছন্দ ছিল না মধ্যপ্রদেশের নিশাতপুরার বাসিন্দা সুধা তিওয়ারির। বছর দেড়েক আগে শিশুটিকে উত্তরাখণ্ডের একটি আশ্রম থেকে দত্তক নিয়ে আসেন সুধা। কিন্তু বছর পাঁচের এই শিশুটির গায়ের কালো রং কোনোভাবেই তিনি মেনে নিতে পারেননি।

 

 

জান যায়, ওই সময় কেউ একজন সুধাকে শিশুটির সারা গা কালো পাথর দিয়ে ঘষলে শিশুটি ফর্সা হয়ে উঠবে এমনটাই বলেছেন। এর পরেই সুধা তার দত্তক নেয়া শিশুপুত্রের সারা গা কালো পাথর দিয়ে ঘষে।

কার্যত তিনি শিশুটির সারা শরীর ক্ষতবিক্ষত করে দেন।

 

 

এদিকে প্রত্যেক দিন ওই শিশুপুত্রের ওপর এমন নৃশংস অত্যাচার দেখে পুলিশে খবর দেন সুধার দিদির মেয়ে শোভনা তিওয়ারি। রোববার চাইন্ড লাইনের কর্মীরা ও পুলিশ গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে।

শিশুটি আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে। তার সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরে শিশুপুত্রটিকে ভোপালের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা যায়।

 


Top