চুয়াডাঙ্গায় অপারেশনে চোখ নষ্ট: কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ নয় কেন? | daily-sun.com

চুয়াডাঙ্গায় অপারেশনে চোখ নষ্ট: কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ নয় কেন?

ডেইলি সান অনলাইন     ২ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:২২ টাprinter

চুয়াডাঙ্গায় অপারেশনে চোখ নষ্ট: কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ নয় কেন?

 

চুয়াডাঙ্গায় চোখের ছানি অপারেশনে ক্ষতিগ্রস্ত ২০ জনের প্রত্যেককে এক কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের যুগ্ম-বেঞ্চ একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে রবিবার (১ এপ্রিল) এই আদেশ দেন।


রুলে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ও হাসপাতালের পরিচালকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না তাও জানতে  চাওয়া হয়েছে।


সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অমিত দাশগুপ্ত রিটের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন। রিট আবেদনটিও করেন তিনি।

 


অমিত জানান, স্বাস্থ্যসচিব, সংশ্লিষ্ট ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে আগামী ৬ মে এই রুলের ওপর শুনানির জন্য তা আদালতে উপস্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। 

 

প্রসঙ্গত, কেউ এক চোখে কিছুটা কম দেখতেন, কারো চোখ দিয়ে ঝরতো পানি। কারো কারো বয়সের ভারে চোখে নেমে এসেছিল ধূসরতা- এ রকম ২৪ জন নারী ও পুরুষ সুস্থতার জন্য গত ৫ মার্চ ভর্তি হয়েছিলেন চুয়াডাঙ্গার ইম্প্যাক্ট মেমোরিয়াল হাসপাতালে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একেবারেই ভালো দেখতে পাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই দিনই ২৪ জন রোগীর একটি করে চোখের অপারেশন করিয়েছিল। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা আর চিকিৎসকের ভুলে এখন ২০ জন রোগী একটি করে চোখ হারিয়েছেন।

 


এমন ঘটনায় চুয়াডাঙ্গায় রীতিমত তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ঘটনার পর থেকেই অপারেশনের দায়িত্বে থাকা ডা. মোহাম্মদ শাহীন পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে গত বুধবার (২৮ মার্চ) তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।


চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা. খায়রুল আলম এর আগে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সদর হাসপাতালের চক্ষু কনসালটেন্ট ডা. শফিউজ্জামান সুমনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

 

 

 


Top