এবার চলন্ত গাড়িতে ছাত্রকে গণবলাৎকার | daily-sun.com

এবার চলন্ত গাড়িতে ছাত্রকে গণবলাৎকার

ডেইলি সান অনলাইন     ২৫ আগস্ট, ২০১৬ ১০:৪১ টাprinter

এবার চলন্ত গাড়িতে ছাত্রকে গণবলাৎকার

এতদিন নৃশংস ধর্ষণকাণ্ডে বারবারই নির্যাতিতদের তালিকায় উঠে এসেছে নারীদের নাম৷ এবার পুরুষরাও বাদ গেল না সেই অত্যাচার থেকে৷ভারতের বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে গণবলাৎকারের অভিযোগ উঠল পাঁচজনের বিরুদ্ধে৷ দু’সপ্তাহ আগে হিন্দি বিভাগের স্নাতকোত্তর প্রথমবর্ষের ছাত্রকে পাঁচ ব্যক্তি বলাৎকার করে৷


জানা গেছে, হাসপাতাল থেকে মেডিক্যাল রিপোর্ট নিয়ে ফেরার পথে পাঁচ ব্যক্তি তাঁকে গাড়িতে তুলে জোর করে মদ খাওয়ায় এবং ধর্ষণ করে৷ চলন্ত গাড়িতে তাঁকে ধর্ষণ করে, খোলা মাঠের উপর ফেলে দিয়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা৷

ঘটনার পরেই শমীক (নাম পরিবর্তিত) পুলিশের কাছে ১০০ ডায়াল করে অভিযোগ জানান৷ কিন্তু প্রাথমিকভাবে পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে কোনওরকম পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি বলে তাঁর পরিবারের তরফে অভিযোগ৷

ঘটনার চারদিন পরে পুলিশ শমীকের অভিযোগ নেয়৷ প্রথমটায় তারা ওই তাঁর অভিযোগকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেয়৷ কিন্তু পরবর্তী সময়ে তাঁর পরিবারের তরফ থেকে বারবার অনুরোধ করা হলে অভিযোগ গ্রহণ করা হয়৷

নির্যাতিত জানিয়েছেন, প্রথমবার মেডিক্যাল পরীক্ষায় ধর্ষণের অভিযোগ সত্যি প্রমাণ হওয়ার পরেও দ্বিতীয়বার তাঁকে মেডিক্যাল টেস্ট করাতে বাধ্য করা হয়৷

নির্যাতিতর পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ এবং বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ গোটা বিষয়টিকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে আর তাই নানাভাবে তাঁকে ভুল প্রমাণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

নির্যাতিতর পরিবারের দাবি, গোটা ঘটনায় তিনি খুবই ভেঙে পড়েছেন৷ এরপরে পুলিশ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহায্য না পেলে তাঁকে বাঁচিয়ে রাখা যাবে না৷

সূত্র : সপ্র


Top