নিহত মিতুর জন্মদিনে স্বামীর মর্মস্পর্শী স্ট্যাটাস | daily-sun.com

নেপালে বিমান দুর্ঘটনা ট্র্যাজেডি

নিহত মিতুর জন্মদিনে স্বামীর মর্মস্পর্শী স্ট্যাটাস

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ মার্চ, ২০১৮ ১৯:০৯ টাprinter

নিহত মিতুর জন্মদিনে স্বামীর মর্মস্পর্শী স্ট্যাটাস

নিউইয়র্ক থেকে দেশের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন নেপালের কাঠমান্ডুতে বিমান বিধ্বস্তে নিহত বিলকিস আরা মিতুর প্রবাসী স্বামী আজিজুল হক। যাত্রাপথে স্ত্রীকে নিয়ে বুধবার ফেসবুকে ইংরেজিতে একটি মর্মস্পর্শী স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

নিউইয়র্কের জেএফকে বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট ছাড়ার আগে তিনি এই স্ট্যাটাস

 

ফেসবুকে আজিজুল লিখেছেন, ‘আমার জান, আমার কলিজা, কেন তুমি আমাকে ভীষণ একা করে দিয়েছ? তুমি ছিলে আমার জীবনের সেরা পাওয়া। তুমি সবসময়, প্রতিটি দিন, প্রতিটি সেকেন্ড আমাকে পরিপূর্ণ করেছ। তুমি প্রতিমুহূর্ত আমার বেঁচে থাকার কারণ। তুমি তো জানতে, তা হলে কেন আমার বুক থেকে সারাজীবনের জন্য আকাশে লুকিয়ে গেলে।’

 

তিনি লিখেন, ‘তোমাকে বলেছিলাম- আমি এতিম-অনাথ এবং তুমিই একমাত্র যে আমার দেখভালের দায়িত্ব নিয়েছ। আমার কলিজা, আজ তোমার জন্মদিন। কিন্তু আমি কীভাবে সবসময়ের মতো আজ তোমার জন্মদিনটি উদযাপন করব। কীভাবে আমি কেকের টুকরো তোমার নাকে লাগিয়ে দেব, কীভাবে আমি দুষ্টুমি করে কেক খাইয়ে দেব?’

 

আজিজুল লেখেন, ‘বেহেস্তে তুমি শান্তিতে থাক। আমি তোমাকে ভালোবাসি। তোমাকে ছাড়া কিছুতেই আমি থাকতে পারছি না। কোনোভাবে বোঝাতে পারছি না।’

গত সোমবার (১২ মার্চ) ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বিএস ২১১ নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর দুর্ঘটনায় পতিত হয়। বিমানবন্দরের এটিসি টাওয়ারের দেয়া ভুল অবতরণ বার্তার জেরে আকাশে অপেক্ষা করতে থাকে বিমানটি। পরে ৬৭ যাত্রী ও চার ক্রুসহ দুপুর ২টা ২০ মিনিটে বিমানটি বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয়। এতে ৫১ যাত্রীর প্রাণহানি ঘটে।

 

এর মধ্যে ২৬ জন বাংলাদেশি নিহত হন। আর ১০ বাংলাদেশি আহত হন। তাদের নেপালের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদের চারজনকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনতে অনাপত্তি দিয়েছে কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজ (কেএমসি)। তারা হলেন- মেহেদী হাসান, কামরুন্নাহার স্বর্ণা, আলমুন নাহার এনি ও শেহরিন আহমেদ।

 


Top