প্রিয়কের মৃত্যুসংবাদ জানানো হয়নি স্ত্রীকে | daily-sun.com

প্রিয়কের মৃত্যুসংবাদ জানানো হয়নি স্ত্রীকে

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ মার্চ, ২০১৮ ১৬:২১ টাprinter

প্রিয়কের মৃত্যুসংবাদ জানানো হয়নি স্ত্রীকে

নেপালে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিমান বিধ্বস্তে নিহত এফএইচ প্রিয়ক ও তামাররা প্রিয়ংময়ীর লাশ আনতে আমি স্টেডিয়ামে যাচ্ছেন স্বজনেরা। তবে অসুস্থতার কারণে তাদের সাথে যাচ্ছেন না প্রিয়কের মা ফিরোজা বেগম।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহত প্রিয়কের চাচাতো ভাই লুৎফর রহমান। এদিকে প্রিয়কের মৃত্যুর খবর এখনো জানানো হয়নি তার স্ত্রী আলমুন নাহার এ্যানীকে।

 

জানা যায়, দুপুর ১২টার দিকে বিমান দুর্ঘটনায় আহত মেহেদী হাসানের বাবা ও প্রিয়কের মামা তোফাজ্জল হোসেন, চাচাতো ভাই লুৎফর রহমান, লুৎফরের ভগ্নিপতি আকরাম হোসেন কাজল পরিবারের পক্ষ থেকে লাশ আনতে আর্মি স্টেডিয়ামের উদ্দেশে রওনা দেন।

 

 

নিহত প্রিয়কের চাচাতো ভাই লুৎফর রহমান, সোমবার মরদেহ দুটি বাড়িতে আনার পর মঙ্গলবার সকাল ৯টায় শ্রীপুরের আব্দুল আউয়াল ডিগ্রী কলেজ মাঠ ও 
বেলা ১১টায় জৈনা বাজার এলাকার মাদবর বাড়ি মাঠে দু’দফা জানাজা শেষে প্রিয়ক ও প্রিয়ংময়ী’র মরদেহ প্রিয়কের নিজ বাড়ির সামনেই দাফন করা হবে।  

 

তিনি আরো জানান, সন্তান-নাতনির মৃত্যুর সংবাদ শোনার পর থেকে তাকে (মা) খুব বিমর্ষ দেখা যাচ্ছে। দোয়া দরুদ পড়েই তিনি দিন কাটাচ্ছেন। উচ্চরক্ত চাপ থাকায় তাকে একজন চিকিৎসকের মাধ্যমে সারাক্ষণই পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তবে প্রিয়কের স্ত্রী আলমুন নাহার এ্যানীকে এখনো মৃত্যুর সংবাদ জানানো হয়নি।

 


Top