বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার আগে যা ঘটেছিল | daily-sun.com

বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার আগে যা ঘটেছিল

ডেইলি সান অনলাইন     ১২ মার্চ, ২০১৮ ১৭:২৯ টাprinter

বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার আগে যা ঘটেছিল

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিধ্বস্ত বিমানটি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় হয়েছে। অবতরণের আগেই বিমানটিতে আগুন ধরে যায়।

পরে বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এ বিষয়ে নেপালের কাঠমন্ডু পোস্ট বলছে, ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের আগেই বিমানটিতে আগুনের সূত্রপাত হয়।

 

 

দেশটির বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক সানজিব গৌতম বলেন, রানওয়েতে অবতরণের চেষ্টার সময় বিমানটির পাইলট নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন।

তিনি আরো বলেন, ইউএস-বাংলার বিমানটিকে বিমানবন্দরের দক্ষিণ-প্রান্ত থেকে রানওয়েতে অবতরণের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিমানটি বিমানবন্দরের উত্তর অংশ থেকে অবতরণের চেষ্টা করে। এ সময় হঠাৎ বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। পরে বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

 

একজন নির্ভরযোগ্য প্রত্যক্ষদর্শীর উদ্ধৃতি দিয়ে বিমান বিধ্বস্তের মুহূর্তটি প্রকাশ করেছে নেপালি টাইমস। ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টার্মিনালের পশ্চিমে সিনামাঙ্গাল এলাকা থেকে তিনি দুর্ঘটনাটি দেখতে পান।

 

 

নেপালি টাইমসকে ওই ব্যক্তি বলেন, বমবার্ডিয়ার কোম্পানির তৈরি বিমানটিকে তিনি দক্ষিণ দিক থেকে এগিয়ে যেতে দেখেন। কিন্তু বিমানটি অবতরণের পরিবর্তে হঠাৎ অপ্রত্যাশিতভাবে বামে দিক তীক্ষ্ণ বাঁক নেয়।

 

 

ওই ব্যক্তি জানান, মুখ ঘুরানোর সময় বিমানটি কন্ট্রোল টাওয়ারের খুব কাছে চলে আসে। এরপর সেটি একটি বুদ্ধ এয়ার এটিআর বিমান ও ইয়েতি এয়ারলাইন জেটস্ট্রিমের উপর দিয়ে উড়ে গিয়ে তার চোখের আড়ালে চলে যায়।

‘এর একমুহূর্ত পরেই রানওয়ের অপর প্রান্ত থেকে কালো ধোঁয়া উড়তে দেখলাম’ বলেন ওই প্রত্যক্ষদর্শী।

 

 

একজন বিমান উড্ডয়ন বিশেষজ্ঞ জানান, অবতরণের করতে গিয়ে হয়তো শেষ মুহূর্তে বিমানটিকে অবতরণের পরিকল্পনা বাদ দিতে হয়েছিল। এমন ক্ষেত্রে বিমানকে বাইরে উড়ে গিয়ে আবার নতুন করে অবতরণের প্রস্তুতি নিতে হয়। কিন্তু, এই ক্ষেত্রে কোনো কারনে বিমানটি আচমকা বাঁক নেয়ায় ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে এবং মুখ থুবড়ে পড়ে।

 

 


Top