বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ কিলোমিটার ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ ঘোষণা | daily-sun.com

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ কিলোমিটার ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ ঘোষণা

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ মার্চ, ২০১৮ ১৬:৫৮ টাprinter

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ কিলোমিটার ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ ঘোষণা

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৮ দশমিক ৩ কিলোমিটার এলাকা ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ বা অপরাধমুক্ত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করেছে দুই দেশের সীমান্তরক্ষা বাহিনী  বিজিবি ও বিএসএফ।

 

প্রথমবারের মতো আজ শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে যশোরের শার্শা সীমান্তের বিপরীতে ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁও সীমান্তে ৬৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কালিয়ানি বিওপি এর দায়িত্বপূর্ণ সীমান্ত এলাকায় এই 'ক্রাইম ফ্রি জোন' এর উদ্বোধন করা হয়।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, বিএসএফ এর মহাপরিচালক শ্রী কে কে শর্মাসহ দুই দেশের পদস্থ কর্মকর্তারা।

 

জানা গেছে, ২০১৭ সালের অক্টোবরে ভারতের নয়া দিল্লিতে অনুষ্ঠিত বিজিবি-বিএসএফ মহাপরিচালক পর্যায়ের বৈঠকে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন সীমান্ত অপরাধ প্রতিরোধের কৌশল হিসেবে অপরাধ প্রবণ এলাকায় ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ ঘোষণার প্রস্তাব করেন। পরে বিএসএফ মহাপরিচালক শ্রী কে কে শর্মা এ প্রস্তাবের প্রশংসা করেন এবং ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বৈঠকে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

জনসংযোগ কর্মকর্তা মুহম্মদ মোহসিন রেজা সাংবাদিকদের জানান, বিজিবি ও বিএসএফ এর সর্বাত্মক প্রচেষ্টা, পারস্পরিক সহযোগিতা ও উদ্যোগের ফলে উক্ত সীমান্ত এলাকা ‘ক্রাইম ফ্রি জোন’ হিসেবে ঘোষণা করা সম্ভব হয়েছে।

 

এতে সীমান্তের এ এলাকার মধ্যে চোরাচালান, নারী ও শিশুপাচার, মানবপাচার, মাদক, অস্ত্র ও বিস্ফোরক পাচারের মতো কোনো আন্তঃসীমান্ত অপরাধ বা কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড না হওয়ার বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক নজরদারি করবে বিজিবি ও বিএসএফ।


Top