শুনুন মস্তিষ্কবিহীন এক আলৌকিক শিশুর কথা | daily-sun.com

শুনুন মস্তিষ্কবিহীন এক আলৌকিক শিশুর কথা

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ মার্চ, ২০১৮ ১৪:৩৫ টাprinter

শুনুন মস্তিষ্কবিহীন এক আলৌকিক শিশুর কথা

প্রতিদিন আমরা কত অবাক করা জিনিস, ঘটনা ফেসবুকের কল্যানে দেখে থাকি। আজকের খবরটি একেবারেই ভিন্ন রকমের।

অলৌকিভাবে বেঁচে থাকা মস্তিষ্কবিহীন শিশু জেক্সন বুয়েলকে নিয়ে।

 

জেক্সন বুয়েল কয়েকদিন আগে তার বার্থ ডে কাটিয়েছে। যেখানে গতবছর তার জন্মের পর ডাক্তাররা বলেছিলো, সে কোনদিন কথা বলতে পারবে না, কোনদিন দেখতে পারবে না, কোনদিন শুনতে পারবেনা। সব থেকে দুঃখের বিষয় হচ্ছে সে বড় জোর কয়েক মাস বেঁচে থাকতে পারে।

 

কিন্তু মেডিকেল সাইন্সকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সেই ছোট্ট জেক্সন বুয়েল কয়েক মাস থেকে এখন ১৩ মাস পর্যন্ত বেঁচে আছে। তার মা ব্রিটানি বুয়েল স্থানীয় উল্ফ টিভিকে জানিয়েছে, “তারা (ডাক্তাররা) বলেছিলো দুই মাস, দুই সপ্তাহ, দু বছর বাঁচতে পারে। এখন তারাই বলছে, “আমরা বলতে পারবো না”।

 

ছেলেটার বাবা, ব্রান্ডন বুয়েল বোষ্টন ডট কম’কে বলেন, “ছেলেটার আসলে কি রোগ হয়েছিলো সেটা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের কখনোই ক্লিয়ার করে বলেনি। তাই আমরা ওকে বাসায় নিয়ে এসে পরিচর্যা শুরু করি। এখন সে অনেক ভালো আছে”।

 

দুরারোগ্য এনেনসেফালি রোগে ভুগছে শিশুটা। ডাক্তাররা তাকে, মাইক্রোহাইড্রা্নেসিফাইলিয়া ডায়গোনসিস করতে দিয়েছে। মাথায় এত ছোট মস্তিষ্ক যে, এটাকে মস্তিষ্কবিহীন বলাই ভালো। কারন এই রোগের কারনে শিশুরা স্বাভাবিক কোন কাজ করতে পারে না। আস্তে আস্তে সব ভুলে যায়। এক সময় মৃত্যুর মুখে ঢলে পরে।

 

শিশু জেক্সনকে বাঁচাতে তার মাথার খুলি প্রতিস্থাপনসহ আনুসাঙ্গিক অপারেশনের জন্য আনুমানিক ৭ লাখ ডলার প্রয়োজন। গো ফান্ড মি নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন শিশুটিকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে এসছে। তারা শিশু জেক্সনের জন্য একটি ফান্ড খুলেছে। এখন পর্যন্ত সেই ফান্ডে ১ লাখ ১২ হাজার ডলার জমা হয়েছে। প্রায় আড়াই হাজার মানুষ সারা পৃথিবী থেকে তাদের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

 

শিশু জেক্সন বুয়েল এর এক বছর পূর্তির জন্মদিনে শিশুটি মায়ের হাত ধরে হেটে, কথা বলে মেডিকেল সায়েন্সকে চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিয়েছে।এছাড়াও জেক্সন এর পরিবার জেক্সন স্ট্রং নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলে তাদের ছোট্ট সোনামনির নিয়মিত আপডেট জানাচ্ছেন।

 

সূত্র: ইন্টারনেট


Top