কীভাবে শ্রীদেবীর প্রেমে পড়েছিলেন বনি কাপূর! | daily-sun.com

কীভাবে শ্রীদেবীর প্রেমে পড়েছিলেন বনি কাপূর!

ডেইলি সান অনলাইন     ২ মার্চ, ২০১৮ ১৫:২৮ টাprinter

কীভাবে শ্রীদেবীর প্রেমে পড়েছিলেন বনি কাপূর!

বছর পাঁচেক আগে একটি সর্বভারতীয় নিউজ চ্যানেলের অনুষ্ঠানে, প্রকাশ্যেই তাঁর এবং শ্রীদেবীর প্রেমকাহিনি তুলে ধরেছিলেন বনি কাপূর। শ্রীদেবীর সামনেই স্বীকার করে নিয়েছিলেন, প্রথম দর্শনেই তিনি তাঁর প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন।

 

যে অনুষ্ঠানে বনি এই স্বীকারোক্তি করেছিলেন, সেটি ২০১৩ সালের। শ্রীদেবীর মৃত্যুর পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে ফের সেই অনুষ্ঠানের কয়েক মুহূর্ত ছড়িয়ে পড়েছে। বনি যখন দর্শকাসন থেকে তাঁদের প্রেমকাহিনির একের পর এক গোপন তথ্য ফাঁস করছেন, মঞ্চে বসে তখন যেন লজ্জায় লাল হয়ে উঠছিল শ্রীদেবীর মুখ।

 

সেই অনুষ্ঠানেই বনি জানান, ১৯৭০-এর দশকে কোনও একটি দক্ষিণী ছবিতে প্রথম বার দেখেই শ্রীদেবীর প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। বনির কথায়, ‘‘মনে মনে ভেবেছিলাম, এই রকম কাউকেই তো আমি জীবনসঙ্গী হিসেবে চাই।’’ এর পরে হিন্দি ছবি ‘সোলভা শাওন’ (১৯৭৯)-এ শ্রীদেবীকে আবারও দেখেন বনি। সেই ছবি সেভাবে সফল না হলেও শ্রীদেবীর অভিনয় বনির মনে ছাপ ফেলে গিয়েছিল। 

 

তার পর থেকেই শ্রীদেবীকে নিয়ে কোনও একটি ছবি করার পরিকল্পনা ছিল বনির। শেষ পর্যন্ত ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ (১৯৮৭)-র জন্য শ্রীদেবীকে নায়িকা হিসেবে ভাবেন বনি। কিন্তু ততদিনে দক্ষিণে তো বটেই, বলিউডেও যথেষ্টই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন শ্রীদেবী। কিন্তু বনি নাছোড় ছিলেন। ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’-র জন্য শ্রীদেবীকে পাকা করতে চেন্নাই উড়ে যান তিনি।

 

বনি জানান, মাদ্রাজে গিয়ে শ্রীদেবীর মায়ের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এই প্রসঙ্গেই ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’-য় শ্রীদেবীর পারিশ্রমিক হিসেবে তাঁর মা কত টাকা চেয়েছিলেন, সেটাও ফাঁস করে দেন বনি। তাঁর কথায়, ‘‘শ্রীদেবীর মা আমার কাছে দশ লক্ষ টাকা দাবি করেন। কিন্তু আমি এগারো লক্ষ টাকা দিতে রাজি হয়ে যাই। ওঁর মা তখন ভেবেছিলেন, কোথা থেকে এই পাগল প্রোডিউসার চলে এসেছেন কে জানে!’’

 

বনি যখন এই সমস্ত তথ্য ফাঁস করছেন, শ্রীদেবী তখন মঞ্চ থেকে তাঁকে থামানোর চেষ্টা করেন। অভিনেত্রী বলেন, ‘‘সব গোপন তথ্যই তো ফাঁস হয়ে গেল!’’ 

বনি অবশ্য থামেননি। শ্রীদেবীর মন জয়ে কীভাবে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’-র শ্যুটিংয়ে তিনি প্রোডিউসার হিসেবে বিশেষ যত্নবান হয়ে উঠেছিলেন, তা-ও বলেন বনি। তিনি জানান, ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবিতে শ্রীদেবীর জন্য তিনজন কস্টিউম ডিজাইনার রাখা হয়েছিল। শ্যুটিংয়ের সময়ে যাতে শ্রীদেবীর কোনওরকম অসুবিধা না হয়, তাও নিশ্চিত করেছিলেন বনি। এসব শুনতে শুনতে শ্রীদেবী হাসিমুখে বলে ফেলেন, ‘‘সবই আসলে আগে থেকে ঠিক করা ছিল!’’

 

এসবের মধ্যেই অবশ্য আসল সত্যিটাও সেদিন বলে ফেলেছিলেন বনি। সবার সামনেই টিভি অনুষ্ঠানে তিনি স্বীকার করেছিলেন, বিবাহিত অবস্থাতেই তিনি শ্রীদেবীর প্রেমে পড়েছিলেন। তাঁর কথায়, ‘‘যত বার ওঁর সঙ্গে দেখা হত, তত যেন ওঁর প্রতি আমি আকৃষ্ট হতাম।’’ নিজের প্রথম পক্ষের স্ত্রীকেও যে শ্রীদেবীর প্রতি তাঁর ভালবাসার কথা তিনি জানিয়েছিলেন, ওই অনুষ্ঠানেই তা স্বীকার করে নেন বনি।

 

এসবই আজ অতীত। যে ঘটনাগুলির দিকে ফিরে তাকালে হয়তো সদ্যপ্রয়াত স্ত্রীকে আরও মিস করবেন বনি কাপূর। চিরবিচ্ছেদের আগের মুহূর্ত পর্যন্ত তাঁদের এই ভালবাসা অটুট ছিল। বলিউডে অনেক সম্পর্ক ভাঙে, গড়ে। শ্রীদেবী-বনির প্রেমকাহিনি সেসবের মধ্যেই সিনেপ্রেমীদের মনে হয়তো চিরকালীন জায়গা করে নেবে। 

 


Top