শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ কার্যকর হচ্ছে আজ | daily-sun.com

শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ কার্যকর হচ্ছে আজ

ডেইলি সান অনলাইন     ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৪:৫৭ টাprinter

শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ কার্যকর হচ্ছে আজ

আজকে  আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে  তারকা জুটি শাকিব-অপুর। আর স্বামী স্ত্রী থাকছেন না এ তারকা জুটি।

 

অপু বিশ্বাস ডিভোর্স লেটার হাতে পাওয়ার পর হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনিও মেনে নিয়েছেন এই নিয়তি।

 

গত বছরের এপ্রিলে টিভি লাইভে এসে চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্কের কথা জানান দিয়ে রীতিমতো তোলপাড় সৃষ্টি করেছিলেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। শাকিবের সঙ্গে গোপন প্রেম, বিয়ে ও সন্তান জন্মের বিষয়টি ফাঁস করেন তিনি। এক বছরের শেষভাগে ৪ ডিসেম্বর অপুর বাসায় শাকিবের ডিভোর্স লেটার পৌঁছায়।

 

নভেম্বর মাসের শুরু থেকেই শাকিব-অপুর ডিভোর্স নিয়ে জোরালো গুঞ্জন শুরু হয়। কিন্তু বাতাসে ভেসে বেড়ানো সে খবর ফুঁ দিয়ে হাওয়ায় উড়িয়ে দিয়েছিলেন অপু বিশ্বাস। বলেছিলেন, এ সম্পর্কে কিছুই জানেন না তিনি।

 

চলচ্চিত্র থেকে সরে এসে সম্পূর্ণভাবে সংসার ও সন্তানের প্রতি মনোযোগ দেয়ার ঘোষণাও দেন।

শাকিবকে ভালোবেসে ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন অপু। সবকিছু ত্যাগ করে শাকিবের সাথে সংসারী হবার স্বপ্নও দেখেছেন। অনেক ঘটনার পরও শাকিবের প্রতি তেমন কোন অভিযোগের আঙুলও তোলেননি অপু। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। সোমবার জানা গেল ২৮ নভেম্বর ডিভোর্স লেটার সই করে শুটিং এ ভারতে চলে গেছেন শাকিব খান। এরপর থেকে সাংবাদিকদের সামনে আর ধরা দিচ্ছেন না অপু বিশ্বাস।

 

শাকিবের সঙ্গে অপুর ডিভোর্স বিষয়ে শাকিবের আইনজীবী সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছিলেন নব্বই দিনের মধ্যে তাদের একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে হবে। শাকিব যদি তার ভুল বুঝতে পেরে আগামী নব্বই দিনের মধ্যে তালাকনামা উঠিয়ে নেন তাহলে এই ডিভোর্স কার্যকর হবে না। অন্যদিকে অপু বিশ্বাস ইচ্ছে করলে এই তালকানামাকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারেন। এবং এটাও নব্বই দিনের মধ্যেই করতে হবে’। অর্থাৎ তিন মাস সময় পাচ্ছেন শাকিব-অপু। আজ সেই নব্বই দিন শেষ হচ্ছে। ফলে আলাদা হয়ে যাচ্ছেন অপু বিশ্বাস শাকিব খান।

 

দেনমোহরের সাত লক্ষ টাকা পরিশোধে আপত্তি নেই শাকিব খানের। ছেলের ভরণপোষণের দায়িত্বও নেবেন তিনি। ছেলে আব্রাম খান জয় প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তার উপর পূর্ণ অধিকার থাকবে মা অপু বিশ্বাসের।

 

অপু বলেন, যা হওয়ার তাতো হয়ে গেছে। এখন আমার ধ্যান জ্ঞান একমাত্র আমার সন্তান আবরাম খান জয়। তার জন্য বাঁচব আর তাকে মানুষ করতে পরিশ্রম করে যাব। শাকিবকে নিয়ে আর কখনো কোনো কথা বলতে চাই না।

 

আজকের পর থেকে আর স্বামী স্ত্রী হিসেবে থাকছেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় জুটি দম্পতি।

 

শাকিব-অপুর মধ্যে সমঝোতার চেষ্টা করেছিল ডিএনসিসি। প্রথম বৈঠকে অপু বিশ্বাস হাজির হলেও শাকিব কিংবা তার কোনো প্রতিনিধি ছিলেন না। এরপর 'কোন লাভ হবে না' জেনে দ্বিতীয় বৈঠকে অপুও তাতে আর যাওয়ার প্রয়োজন মনে করেননি। নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে প্রায় ১০ বছরের মাথায় অবসান ঘটল শাকিব-অপু অধ্যায়ের।


Top