মেলানিয়াকে প্রপোজ করতে মিথ্যার আশ্রয় নেন ট্রাম্প | daily-sun.com

মেলানিয়াকে প্রপোজ করতে মিথ্যার আশ্রয় নেন ট্রাম্প

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৮:০৫ টাprinter

মেলানিয়াকে প্রপোজ করতে মিথ্যার আশ্রয় নেন ট্রাম্প

মেলানিয়াকে যখন বিয়ে করেন তখন ডোনাল্ড ট্রাম্প শুধুই একজন মার্কিন ধনকুবের! অবশ্য পরিচয়ের জন্য সেটাই ছিল যথেষ্ট। কিন্তু বয়সে দ্বিগুণ একজন বৃদ্ধকে বিয়ের পেছনে কি কারণ ছিল মেলানিয়ার? প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়ানোর পর থেকে মার্কিন গণমাধ্যমকর্মীরা ট্রাম্পের পেছনে যেভাবে লেগেছেন তাতে অনেক অজানা তথ্যই সামনে চলে এসেছে। যা নিয়মিতই বিব্রত করে শক্তিধর দেশটির নেতাকে।

 

 

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউএসএ টুডে এবং ব্রিটেনের এক্সপ্রেস ইউকে জানিয়েছে, ট্রাম্প বিয়ের প্রস্তাবের সময় মেলানিয়ার নাকের সামনে যে হীরার আঙটি ঝুলিয়েছিলেন তাতেই নাকি মাথা ঘুরে যায় সাবেক মডেলের।  

দামও অবশ্য মাথা ঘুরিয়ে দেয়ার মতোই! তিন মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ টাকার হিসেবে প্রায় ২৫ কোটি টাকা।

 

 

নিউইয়র্কের কস্টিউম ইন্সস্টিটিউট গালাতে একাত্তরের বুড়ো ট্রাম্পের কাছ থেকে ২০০৪ সালে বিয়ের প্রস্তাব পান মেলানিয়া। অঢেল সম্পদের মালিক ট্রাম্পের কাছ থেকে এমন বহুমূল্য প্রস্তাব পেয়ে আর না করতে পারেননি মেলানিয়া। বাবার বয়সী জেনেও রাজি হয়ে যান বিয়েতে!

 

 

তবে সংবাদমাধ্যমগুলো তদন্তে জেনেছে, ট্রাম্প মুখে আংটির মূল্য ২৫ লাখ ডলার বললেও আসলে সেটির দাম ছিল অর্ধেক। অর্থাৎ ট্রাম্প নাকি পরে স্বীকারও করেছিলেন আংটির মূল্য ৩০ লাখ ডলার হলেও সেটি নাকি তিনি অর্ধেক দামে কিনেছিলেন।

 

 

অবশ্য অর্ধেক দামের হোক বা নাই হোক, মেলানিয়ার হীরার আংটিকে এখনও টেক্কা দিতে পারেনি বিশ্বের কোনো ধনবানেরা। এমনকী ব্রিটিশ রাজপরিবারের হবু বধূ মেগান মার্কেলের হীরার আংটির দামও এর ধারে কাছে নেই।

 

মেলানিয়ার আংটিতে যে হীরা বসানো রয়েছে তা ডি –ফ্লাওলেস (D-flawless) ধাঁচের।‌‌‌ যা খুবই দুষ্প্রাপ্য এবং বহুমূল্য! ব্রিটেনের বিখ্যাত রত্ন বিশারদ লরেন্স গ্রেফ নিজেই নাকি আংটির সার্টিফিকেট দিয়েছেন!

কেবিএ

 


Top