ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে হারানো প্রেমকে ফেরাতে চান! | daily-sun.com

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে হারানো প্রেমকে ফেরাতে চান!

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৫:৪৯ টাprinter

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে হারানো প্রেমকে ফেরাতে চান!

অধুনা ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তেই  বসন্তের ছোঁয়া লাগে  তরুণ প্রজন্মের মনে। রীতিমতো এক সপ্তাহ আগে থেকেই শুরু হয় তার কাউন্ট ডাউন।

রোজ ডে, প্রমিস ডে ইত্যাদি নানা দিন পেরিয়ে তবে আসে ১৪ ফেব্রুয়ারি। ভালবাসার দিন। আর এই দিনটাকে নিয়ে যতই মেতে ওঠে প্রেমিক-প্রেমিকারা, ততই উৎসবের বিপ্রতীপে চলে যেতে থাকে একলা মানুষের মন। এ দিন তার কাছে যন্ত্রণার। ‘প্রেমের ফাঁদ পাতা ভুবনে’, তবু এখনও সে ধরা পড়েনি যে! এই দিনটা তাই তাকে আরও বেশি একা করে দিতে থাকে। কিন্তু তার চেয়েও খারাপ অবস্থা হয় তাঁদের, যাঁরা সদ্য সয়েছে বিচ্ছেদের জ্বালা। হারানো প্রেমের কাছে ফিরে যাওয়ার আকুতি তাঁর মধ্যে জাগিয়ে তোলে চূড়ান্ত সংশয়।

 

আমি কি আমার প্রাক্তনকে ফোন করব? 

আমি কি ওকে ‘হ্যাপি ভ্যালেন্টাইন’ উইশ করব?

আমি কি ওকে আজ বাইরে যাওয়ার প্রস্তাব দেব? 

নাকি, আজ অন্য কারও সঙ্গে ডেটে যাওয়া উচিত আমার?

আমার ‘প্রাক্তন’ও কি ডেটে যাওয়ার প্ল্যান করছে? আসুন দেখা যাক, কীভাবে সামলাবেন এই প্রশ্নগুলিকে।

 

আপনার কি প্রাক্তন প্রেমিক/প্রেমিকাকে টেক্সট বা ফোন করা উচিত আজকের দিনে?

নিজের প্রাক্তনকে ফোন করতেই পারেন, যদি তার সঙ্গে বাইরে বেরনোর প্ল্যান করে থাকেন। কিন্তু এছাড়া অন্য কোনও কারণে তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাওয়াটা মোটেই ভাল হবে না। এতে আপনার ভিতরের অসহায়তাটাই আরও বেশি করে প্রকট হবে মাত্র। তবু মন যে মানে না। ফোন করার জন্য আপনি হয়তো মনে মনে নানা কারণ সাজাচ্ছেন। ভাবছেন— আরে আমি তো ওকে জাস্ট হ্যাপি ভ্যালেন্টাইন বলতে ফোন করব। এতে অন্যায় কি আছে? এর আগেও তো প্রতিবার আজকের দিনে ওকে উইশ করেছি। এমনকী, যখন আমরা সম্পর্কে ছিলাম না তখনও। কাজেই, এটা মোটেই অন্যায় হবে না। বরং না করলেই ব্যাপারটা খুব খারাপ দেখাবে। 

 

তবে একটু ঠান্ডা মাথায় ভেবে দেখলে,  এমনটা করা হয়ত মোটেই উচিত হবে না। একটু ঠান্ডা মাথায় ভেবে দেখুন—

আপনার প্রেমিক/প্রেমিকা কিন্তু এখন আপনার ‘প্রাক্তন’। ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে যদি আপনি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তাহলে তাদের কাছে এই বার্তাই পৌঁছবে, আপনি আজও ব্যাপারটা থেকে বেরিয়ে আসতে পারেননি। গ্রিটিং কার্ড কোম্পানির পাল্লায় পড়ে ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র এই রমরমা। খামোখা তার পাল্লায় পড়ে আপনি যদি যোগাযোগ করে বসেন, তাহলে সে মনে করতেই পারে, আপনি এই দিনের ভরসায় হারানো প্রেমকে ফিরে পেতে চান।

 

আপনার প্রাক্তন কি আজকে দিনে ডেটে যাচ্ছে অন্য কারও সঙ্গে?

হতেই পারে সে এমনই প্ল্যান করছে। আপনি কি ফোন করে সেই প্ল্যান পালটাতে পারবেন! মাঝখান থেকে আপনি ফোন করলে সেটা হবে চরম বোকামির লক্ষণ।

কিন্তু আমি তো কেবল জানতে চাই সে ডেটে গিয়েছে কি না।

 

কী হবে জেনে? মাঝখান থেকে আপনার মনটা আরও খারাপ হবে। কাজেই ছেড়ে দিন না। গুনগুন করে উঠুন শ্যামল মিত্র— ‘যাক যা গেছে তা যাক’। যদি সত্যিই আপনার ‘প্রাক্তন’ আবার ফিরে আসে আপনার জীবনে তখন তার জীবনের এই অধ্যায়টাও আপনার কাছে পরিষ্কার হয়ে যাবে। কাজেই সেই দিনটার অপেক্ষায় থাকুন। 

 

প্রাক্তনকে কি উপহার দেওয়া উচিত ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে

এটাও কিন্তু আপনাকে তার কাছে চূড়ান্ত অসহায় করে তুলবে। হ্যাঁ, এমনটা যদি হয়, আপনাদের সম্পর্কের ফাটল আবার মেরামত হয়ে গিয়েছে, তাহলে আলাদা কথা। সেক্ষেত্রে আপনার উপহার দেওয়ায় কোনও ভুল তো নেই-ই, বরং তা সম্পর্ককে আগের জায়গায় ফিরিয়ে আনতেই সাহায্য করবে। কিন্তু যদি তেমন কোনও কিছু না থাকে, তাহলে? তাহলে একদম এমন কিছু করার ব্যাপারে ভাববেন না।

 

আপনার কি অন্য কারও সঙ্গে ডেটে যাওয়া উচিত?

অবশ্যই যেতে পারেন। ঘরে বসে হারানো প্রেমের কথা ভেবে হাহুতাশ করার থেকে সেটা অনেক ভাল একটা পদক্ষেপ হবে।

 

প্রাক্তনকে ডেটে ডাকবেন কি না

আমার মতে সেটা আপনি করতেই পারেন। কেবল এই কারণেই তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়। কিন্তু, সেটা করার আগেও বারবার ভাবুন। ঠান্ডা মাথায় একলা ঘরে বসে ভেবে নিন, সত্যিই পরিস্থিতি অনুযায়ী সেটা ঠিক কাজ হবে কি না। আগের তিক্ততা কি এখনও আছে আপনাদের মধ্যে? তেমন কিছু না থাকলে অবশ্যই যোগাযোগ করতে পারেন। 

অর্থাৎ, এমনটা হতেই পারে, আপনি এবং আপনার ‘প্রাক্তন’ হারানো সম্পর্ককে নতুন করে ফিরে পেতে চাইছেন। সেক্ষেত্রে যোগাযোগ করা ও ডেটে যাওয়ার প্রস্তাব দেওয়ায় কোনও সমস্যা নেই। 

পরিস্থিতি যদি উলটো হয়, সবে মাত্র ব্রেক আপ হয়েছে আপনাদের, তাহলে কিন্তু যোগাযোগ করাটা চূড়ান্ত ভুল সিদ্ধান্ত হবে।

কাজেই ভ্যালেন্টাইন্স ডে’তে ‘প্রাক্তন’-এর সঙ্গে যোগাযোগ করার আগে ভাল করে ভাবুন। রীতিমতো স্ট্র্যাটেজি তৈরি করে এগোন। 

আগেই বলেছি, ভ্যালেন্টাইন্স ডে আসলে মিডিয়া আর কার্ড প্রস্তুতকারী সংস্থা  দ্বারা ওভারহাইপড একটা দিন। খামোখা তার পাল্লায় পড়ে আত্মসম্মানকে বিসর্জন দেওয়া অর্থহীন। তাই সবটা ভাল করে ভাবুন আর সিদ্ধান্ত নিন। 

 


Top