যুগের সাথে তাল মিলিয়ে স্বপ্নেও কি এলো পরিবর্তন! | daily-sun.com

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে স্বপ্নেও কি এলো পরিবর্তন!

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৬:০৭ টাprinter

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে স্বপ্নেও কি এলো পরিবর্তন!

স্বপ্ন আমাদের জীবনের সবচেয়ে রহস্যময় ও মজার অভিজ্ঞতাগুলোর একটি। রোমান সাম্রাজ্যের আমলে স্বপ্নকে অনেক গুরুত্ব দেওয়া হতো।

সম্রাট যা স্বপ্নে দেখতেন তা বিশ্লেষণ করতেন রোমের সেরা পণ্ডিতরা। স্বপ্নের উপর ভিত্তি করে অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হতো তখন। অনেক সময় মনে করা হতো স্বপ্ন হচ্ছে ঈশ্বরের পাঠানো বার্তা। আবার বলা হয়, অনেক শিল্পীই তাদের সৃজনশীল আইডিয়া স্বপ্নের মাধ্যমে পান।

 

আধুনিক বিজ্ঞানীরা স্বপ্নকে ঈশ্বরের বার্তা মনে না করলেও, তারা জানাচ্ছেন এ সম্পর্কে নানা মজাদার তথ্য। চলো জেনে নিই স্বপ্ন সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা কি জানাচ্ছেন-

 

১. তুমি কখনোই একই সঙ্গে নাক ডাকতে এবং স্বপ্ন দেখতে পারবে না।

 

২. স্বপ্নের ৯০ শতাংশ ঘটানাই তুমি ভুলে যাও। 

 

৩. অন্ধ মানুষেরাও স্বপ্ন দেখতে পান। যারা জন্মগত অন্ধ তারা স্বপ্নে কোনো ছবি দেখতে পান না। তাদের স্বপ্নে অন্য অনুভূতি, যেমন- শব্দ, গন্ধ, স্পর্শ ও আবেগ কাজ করে এবং এ স্বপ্ন অন্য মানুষদের স্বপ্নের মতোই প্রাণবন্ত হয়।

 

৪. সব মানুষই স্বপ্ন দেখে। যদি মনে করো তুমি স্বপ্ন দেখ না, এরমানে স্বপ্নের কথা তোমার মনে নেই।

 

৫. তুমি স্বপ্নের মধ্যে শুধু পরিচিত মানুষদের চেহারাই দেখতে পাও। স্বপ্নে যাকে দেখবে বাস্তব জীবনেও তাকে অবশ্যই দেখেছো। হতে পারে তার চেহারা তোমার মনে নেই, অথবা সে একজন কার্টুন চরিত্র।

 

৬. অধিকাংশ মানুষই স্বপ্নে রং দেখতে পান। তবে আগে ব্যাপারটা এরকম ছিল না। ১৯১৫ সাল থেকে ১৯৫০ সাল পর্যন্ত গবেষণায় বিজ্ঞানীরা দেখেছেন- মানুষের স্বপ্নের অধিকাংশই সাদা-কালো। কিন্তু ১৯৬০ সালের পর থেকে ব্যতিক্রমী ফলাফল পাওয়া গেলো। দেখা যায়, মাত্র ৪.৪ শতাংশ মানুষ সাদা-কালো স্বপ্ন দেখেন। মনে করা হয়, রঙিন টেলিভিশন আবিষ্কারের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক থাকতে পারে।

 

৭. স্বপ্নের মধ্যে যে অনুভূতিটা সবচেয়ে বেশি কাজ করে, তা হচ্ছে উদ্বেগ। 

 

৮. মানুষ ঘুমের মধ্যে গড়ে চার থেকে সাতটি স্বপ্ন দেখে এবং গড়ে এক থেকে দুই ঘণ্টা স্বপ্ন দেখতে দেখতে কেটে যায়।

 

৯. পশু-পাখিরাও স্বপ্ন দেখে।

 

১০. মানুষ তার জীবনের প্রায় ছয় বছর স্বপ্ন দেখে পার করে।


Top