সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিজয়ী এই সুন্দরী আসলে একজন পুরুষ | daily-sun.com

সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিজয়ী এই সুন্দরী আসলে একজন পুরুষ

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১২:৪৩ টাprinter

সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিজয়ী এই সুন্দরী আসলে একজন পুরুষ

ভারচুয়াল জগতে নানা ধরনের প্রতিযোগিতার কথা হামেশাই নজরে আসে। পিছিয়ে নেই সৌন্দর্য প্রতিযোগিতাও।

সম্প্রতি তেমনই এক ভারচুয়াল কনটেস্ট হৈচৈ ফেলে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

ইনস্টাগ্রামের ছবির উপরে ভিত্তি করে এক সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা আয়োজিত করা হয়েছিল কাজাখস্তানে। দেশের নানা শহর থেকে তাতে অংশ নেনে সুন্দরীরা। এবং এক সময় ফাইনালিস্ট-দের তালিকাও প্রস্তুত হয়ে যায়।  

 

সে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের রাজধানী শহর সিমকেন্ট থেকে ফাইনাল রাউন্ডে সুযোগ করে নেন অরিনা অলিয়েভা। ‘মিস ভারচুয়াল কাজাখস্তান’ সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায়, ২০০০-এরও বেশি ভোট পান এই কাজাখ সুন্দরী। কিন্তু, তার পরেই ঘটে বিপত্তি।

 

ফাইনালে পৌঁছনোর দু’দিন পরে অরিনা নিজেই স্বীকার করেন যে তিনি আসলে একজন পুরুষ। বন্ধুদের সঙ্গে নিছক ‘চ্যালেঞ্জ’ করেই তিনি এই সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় অংশ নেন।

২২ বছরের এই পুরুষ মডেলের নাম আসলে ইলেই দাগিলেভ।  

 

 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘বিবিসি ডট কম’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইলেই দাগিলেভ নিজেই জানিয়েছেন যে, ফাইনালে পৌঁছে তিনি নিজেই অবাক হয়ে গিয়েছেন। সত্যি জানার পরে, অনেকেই বিরূপ মন্তব্য করেন তাঁর ইনস্টাগ্রামে। অনেকে আবার এমন কথাও বলেছে যে, বেশ কয়েকজন মহিলা প্রতোযোগীর থেকে ইলেইকে দেখতে বেশি সুন্দর।  

 

প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ১৭ বছর বয়স থেকে মডেলিং করছেন ইলেই দাগিলেভ। এবং সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েই তিনি এমন একটি চ্যালেঞ্জ নেন। তিনি মনে করেন, মেক-আপ ও ফোটোগ্রাফির সাহায্যে একজন পুরুষও, মহিলাদের মতো সুন্দর হয়ে উঠতে পারে।  

 

সত্য উদ্ঘাটনের পরে স্বাভাবিকভাবেই প্রতিযোগিতা থেকে বাদ পড়েন ইলেই দাগিলেভ। তাঁর জায়গায় ‘মিস ভারচুয়াল সিমকেন্ট’এর তকমা পেলেন আইকেরিম তেমিরখানোভা। ইনস্টাগ্রামে তিনি পেয়েছিলেন ১৯৭৫ ভোট। ফাইনালেও অন্য সুন্দরীদের সঙ্গে দেখা যাবে আইকেরিমকেই।

 


Top