আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা জমা | daily-sun.com

আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা জমা

ডেইলি সান অনলাইন     ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১২:৩২ টাprinter

আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা জমা

 

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় উপলক্ষে ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতে খালেদা জিয়ার হাজিরা জমা দিয়েছেন তার আইনজীবীরা। বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটের দিকে রাজধানীর পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালত-৫ এ বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া এ হাজিরা জমা দেন।


ইতিমধ্যে রায় শুনতে বেলা ১১ টা ৪৫ মিনিটের দিকে গুলশানের বাসা (ফিরোজা) থেকে আদালতের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন মামলার অন্যতম আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ।


এর আগে সকাল ১০টা ২০ মিনিটে আদালতে পৌঁছেছেন বিচারক ড. আখতারুজ্জামান। তিনি নিজের খাসকামরায় অবস্থান করছেন। খালেদা জিয়া আদালতে পৌঁছলে তার উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করবেন এ বিচারক।


এর আগে সকাল সোয়া আটটার দিকে মামলার অপর আসামি মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদকে আদালতে আনা হয়েছে।


এরই মধ্যে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সুপ্রিমকোর্ট বারের সাবেক সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন, বর্তমান সভাপতি জয়নুল আবেদীন, মীর নাসির উদ্দীন, নিতাই চন্দ্র রায়, সানাউল্লাহ মিয়া, আজিজুর রহমান খান বাচ্চু, আমিনুল ইসলাম ও জয়নুল আবেদীন মেজবাহ আদালতে উপস্থিত হয়েছেন।


এ ছাড়া রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাডভোকেট খন্দকার আব্দুল মান্নান, মীর আবদুস সালাম প্রমুখ আদালতে উপস্থিত হয়েছেন।


এদিকে রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে আদালত ও এর আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আদালতে প্রবেশের পথে স্ক্যানার বসানো হয়েছে।

সবাইকে তল্লাশির পর ভেতরে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে। দুই দফায় নাম-প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর লিখে সেখানে পৌঁছেছেন সাংবাদিকরাও।


এছাড়া রায় ঘোষণার সময় মামলা সংশ্লিষ্ট উকিল ছাড়া অন্য কাউকে আদালতে প্রবেশ করতে না দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। ফলে আদালতে প্রবেশ করতে না পেরে আদালতের বাইরে অবস্থান নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। এক পর্যায়ে সকাল সোয়া ১০টার দিকে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা জোর করে আদালতে ঢুকতে চাইলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। ১০ মিনিট ধস্তাধস্তির পর বিএনপিপন্থীরা পিছু হটে।


গত ২৫ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসায় স্থাপিত বিশেষ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন।  


এ মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন ৩২ জন। ১২০ কার্যদিবসের বিচারকার্য শেষ হয়েছে ২৩৬ দিনে। আত্মপক্ষ সমর্থনে গেছে ২৮ দিন। যুক্তি উপস্থাপন চলেছে ১৬ দিন। আর আসামি পক্ষ মামলাটির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উচ্চ আদালতে গিয়েছেন ৩৫ বার।


এ মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হলে খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন (৩০ বছর) কারাদণ্ড হতে পারে। খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানও এ মামলায় আসামি। এ মামলাতে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। বর্তমানের তিনি লন্ডনে অবস্থান করছেন।


এ মামলায় অন্য আসামিদের মধ্যে কারাগারে রয়েছেন মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ।


এছাড়া সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান মামলার শুরু থেকেই পলাতক।

 


Top