ফেসবুকে ভাইরাসের হানা! | daily-sun.com

ফেসবুকে ভাইরাসের হানা!

ডেইলি সান অনলাইন     ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৯:০৫ টাprinter

ফেসবুকে ভাইরাসের হানা!

২০১৭-এর শেষ দিকে ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিয়েছিল ফেসবুকে। সামান্য অসতর্কতাতেই ব্যক্তিগত তথ্য হ্যাকারদের হাতে চলে যাওয়ার আতঙ্কে পড়তে হয়েছিল ব্যবহারকারীদের।

বছর ঘুরলেও এখনও সক্রিয় হ্যাকাররা। গত জানুয়ারিতেই সিঙ্গাপুরে হানা দিয়েছিল এই ভাইরাস। সেখানকার ফেসবুক ব্যবহারকারীরা পড়েছিলেন চরম বিড়ম্বনায়।  

 

একটি বিদেশি ওয়েবসাইট ২-স্পাইওয়্যার.কম-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে বিশদে জানানো হয়েছে, এই ধরনের সমস্যা থেকে কীভাবে রেহাই পাবেন। এই ম্যালওয়্যারগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি যার নাম শোনা যায় সেটি হল ফেসবুক ভিডিও ভাইরাস। ফেসবুক মেসেঞ্জারের মাধ্যমেই মূলত এটি ছড়িয়ে পড়ে। এ ছাড়াও নানা রকম ম্যালওয়্যার রয়েছে। কখনও আপনার বন্ধু তালিকার সবাইকে স্প্যাম মেসেজ পাঠিয়ে, কখনও বা কোনও ‘ফেক’ প্রতিযোগিতার আয়োজনের মাধ্যমেও তা ছড়িয়ে পড়তে পারে।  

 

রয়েছে উপহারের টোপ।

দামী সামগ্রী জেতার সুযোগ দিয়ে এই টোপ তৈরি করা হয়। এমত নানাবিধ বিপজ্জনক ভাইরাস ঘোরাফেরা করে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের আশে পাশে।   জেনে নিন এদের হাত থেকে রেহাই পেতে কী করবেন।  

 

আপনার কোনও বন্ধুর পাঠানো সন্দেহজনক লিঙ্কে ক্লিক করবেন না। বিশেষ করে ভিডিও বা ছবি। যদি একান্তই ইচ্ছে করে ক্লিক করতে, তাহলে ক্লিক করার আগে বন্ধুকে একটি মেসেজ করে জেনে নিন ওই লিঙ্ক সে পাঠিয়েছে কি না। সেই সঙ্গে দুমদাম করে কোনও গেম রিকোয়েস্টেও সাড়া দেবেন না। হতেই পারে সেটা সাইবার অপরাধীদের কারসাজি।

 

যদি বোঝেন ভাইরাসের পাল্লায় পড়েছেন, তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ফেসবুকের পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন। পাশাপাশি সমস্ত বন্ধুদের জানিয়ে দিন, আপনি ভাইরাসের পাল্লায় পড়েছেন। এর পর ডাউনলোড করে নিন রিইমেজ বা প্লামবাইটস অ্যান্টি-ম্যালওয়্যার। তার পর আপনার কম্পিউটার স্ক্যান করুন।    


Top