এমপিওভুক্তদের জাতীয়করণের দাবিতে ৫ম দিনে অনশনে শিক্ষকরা | daily-sun.com

এমপিওভুক্তদের জাতীয়করণের দাবিতে ৫ম দিনে অনশনে শিক্ষকরা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৩:৩৫ টাprinter

এমপিওভুক্তদের জাতীয়করণের দাবিতে ৫ম দিনে অনশনে শিক্ষকরা

 

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষকদের আমরণ অনশন আজ শুক্রবার পঞ্চম দিনে গড়িয়েছে। বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরামের ব্যানারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই অনশন চলছে।


বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো কমিটির আহ্বায়ক মো. আব্দুল খালেক বলেন, দেশের উন্নয়নের প্রধান শর্ত, মানসম্মত শিক্ষা। এই মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে অবশ্যই শিক্ষা ক্ষেত্রে বিরাজমান সকল বৈষম্য দূর করতে হবে। আমাদের প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে।

 
এর আগে গত ১০ জানুয়ারি থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষকেরা। পরে গত ১৫ জানুয়ারি থেকে আমরণ অনশনে বসেন তারা।


এর মধ্যেই মাইকে জাতীয়করণের দাবিতে ‘শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ চাই, শিক্ষাক্ষেত্রে বৈষম্য নই’সহ বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন শিক্ষকেরা।


গতকাল বৃহস্পতিবার শিক্ষকদের এই দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন জাসদের সাবেক এমপি অধ্যাপক হুমায়ুন কবির, কলাম লেখক জাহাঙ্গীর হোসেন।


বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল), বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (শাহ আলম-জসিম), জাতীয় শিক্ষক পরিষদ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ শিক্ষক ইউনিয়ন সমন্বয়ে গঠিত ৬টি বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরামের ব্যানারে আন্দোলন করছেন শিক্ষকেরা।


প্রসঙ্গত, গত ২৬ ডিসেম্বর প্রায় ৫ হাজারের অধিক নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা এমপিওভুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন। সরকারের পক্ষ থেকে কোনোরকম সাড়া না পেয়ে ৩১ ডিসেম্বর থেকে তারা আমরণ অনশনে যান। প্রেসক্লাবের সামনে খোলা আকাশের নিচে শীতের মধ্যে টানা ৬ দিন আমরণ অনশন ও টানা ১১ দিন অবস্থানের পর গত ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসে শিক্ষকরা তাদের কর্মসূচি স্থগিত করেন।


এর আগে গত ২৬ ডিসেম্বর বেতন বৈষম্য দূরীকরণ তথা জাতীয় বেতন স্কেলের ১১তম গ্রেড বাস্তবায়নের দাবিতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা টানা তিন দিন আমরণ অনশন পালন করে সরকারের পক্ষ থেকে আলোচনার মাধ্যমে তাদের সমস্যা সমাধান করা হবে, যদি তাদের দাবি যুক্তিযুক্ত হয়, এমন প্রতিশ্রুতি নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। 

 

এরপরের দিনই জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই অবস্থান কর্মসূচিতে বসেছেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা। তবে গত ৯ জানুয়ারি থেকে টানা ৮দিন আমরণ অনশন শেষে ইবতেদায়ী মাদ্রাসাকে শিক্ষামন্ত্রী জাতীয়কারণের প্রক্রিয়ার আশ্বাস দিলে তারাও অনশন প্রত্যাহার করেন।


প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের ঘোষণা দেন।

 


Top