শপিং করতে না নিয়ে যাওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা | daily-sun.com

শপিং করতে না নিয়ে যাওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা

ডেইলি সান অনলাইন     ১৭ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৫:১৭ টাprinter

শপিং করতে না নিয়ে যাওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা

স্বামী অফিস থেকে ফিরে শপিং করাতে নিয়ে যাবেন বলেছিলেন। সেই মতো তৈরি হয়ে বসেছিলেন স্ত্রী।

কিন্তু বাড়ি ফিরে স্বামী শপিং করতে যেতে রাজি হলেন না। ফলে স্ত্রীর সঙ্গে বচসাতে জড়ান ওই ব্যক্তি।

 

পরের দিন সন্ধ্যাবেলায় স্বামী অফিস থেকে ফেরার পর দেখেন বাড়ির দরজা বাইরে থেকে বন্ধ। একাধিকবার ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও স্ত্রী ফোন কেটে দেন। পরের দিন সকালে দরজা ভেঙে মহিলার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান স্বামী।

 

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, কয়েকদিন পরেই ওই দম্পতির এক আত্মীয়ের বিয়ে ছিল। তাই জন্য স্বামী দীপকের কাছে শপিং করতে নিয়ে যাওয়ার আবদার করেছিলেন স্ত্রী দিপীকা।  

 

কিন্তু তা না হওয়ায়, স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি বাধে। দীপকের দাবি, পরের দিন অফিস থেকে ফেরার পর তিনি দেখেন বাড়ির দরজা বন্ধ রয়েছে।

অনেক ডাকাডাকি করেও কোনও সাড়া তিনি পাননি। শেষে বাধ্য হয় বাড়ির বাইরেই অপেক্ষা করতে হয় তাঁকে। শেষে পরের দিন সকালে প্রতিবেশীদের ডেকে এনে দরজা ভেঙে তিনি তাঁর স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন।  

 

জানা গিয়েছে, দিপীকা ছোট ব্যাপারেই রাগারাগি করতেন। দরজাও বন্ধ করে দিতেন। তবে সামান্য শপিং করতে না যাওয়ার জন্য দিপীকা এতো বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে নেবেন, তা ভাবতেও পারেননি বলে জানিয়েছেন দীপক।  

 


Top