১০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ | daily-sun.com

১০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

ডেইলি সান অনলাইন     ১২ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৫:৩৪ টাprinter

১০ টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

 মাত্র দশ টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে সাত বছরের একটি মেয়েকে তারই ভাইয়ের সামনে ধর্ষণ করল ভারতে নয়ডা পুলিশের এক কর্মী। প্রায় ঘণ্টা খানেক নির্যাতন চালানোর পর মেয়েটির কান্নার আওয়াজে স্থানীয় মানুষ যখন সেখানে আসতে শুরু করে, সেসময় মেয়েটিকে ফেলে পালায় অভিযুক্ত পুলিশকর্মী। বাচ্চা মেয়েটিকে নয়ডার সেক্টর ৩০-র জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্যে।

 

 

অভিযুক্ত পুলিশকর্মী ৪৫ বছরের ওই কন্সটেবল বর্তমানে ডেপুটেশন ডিউটিতে সেল্স ট্যাক্স ডিপার্টমেন্টের গৌতমবুদ্ধ নগরে কাজ করছিল। বুধবার সন্ধেবেলা বাচ্চা মেয়েটিকে ডেকে সামান্য দশ টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে তার ভাইয়ের সামনেই তাকে ধর্ষণ করে সুভাষ সিংহ। পরে স্থানীয় মানুষের গলার আওয়াজ পেয়ে সেখান থেকে পালায়। অভিযুক্ত ভেবেছিল সে রাতেই গোটা ঘটনা থিতিয়ে যাবে। তাই সে বৃহ্স্পতিবার সকালে নিজের এক কামরার ভাড়ার ঘরে ফিরে আসে। অভিযুক্তকে বাড়িতে দেখেই স্থানীয় বাসিন্দা ও নির্যাতিতার পরিবার তারওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। চটি, জুতো নিয়ে বেধড়ক মার শুরু হয়। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

 

 

রেগে গিয়ে উন্মত্ত জনতা বলতে থাকে, ভারতে এরা পুলিশকর্মী নয়, এরা আসলে চৌকিদার। কোনও আসল অপরাধীকে গ্রেফতার করতে এরা অক্ষম। এরা শুধু ছোট ছোট অসহায় শিশুকে ধরে ধর্ষণ করতে পারে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা রুজু হয়েছে।

 

 

 


Top