ঢাকা উত্তরে বিএনপি’র প্রার্থী ঘোষণা শনিবার | daily-sun.com

ঢাকা উত্তরে বিএনপি’র প্রার্থী ঘোষণা শনিবার

ডেইলি সান অনলাইন     ৯ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৭:৩০ টাprinter

ঢাকা উত্তরে বিএনপি’র প্রার্থী ঘোষণা শনিবার

 

আগামী শনিবার (১৩ জানুয়ারি) স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে জোটের চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করবে বিএনপি। মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) বিকেলে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সাবেক কমিশনারর আব্দুল মজিদের জানাজা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।


আরেক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল সোমবার রাতে ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে জোটের শীর্ষ নেতারা ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রার্থী বাছাইয়ের দায়িত্ব বিএনপি চেয়ারপাররসন খালেদা জিয়াকে দিয়েছেন। তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন যাকে মনোনয়ন দিবেন, জোট তাকেই সমর্থন দেবে।


একই সময়ে ডিএনসিসি নির্বাচনের ৭ দিন আগে থেকে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানান তিনি।


অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের বিষয়ে আমাদের আগেই বক্তব্যে সঠিক। কারণ ইসি যে পদ্ধতিতে গঠন করা হয়েছে, সেই পদ্ধতি সঠিক ছিল না। আর প্রধান নির্বাচন কমিশন দল নিরপেক্ষ নন। তবে উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মাধ্যমে বুঝতে পারবো, জাতীয় নির্বাচনে ইসি'র ভূমিকা কি হবে। আমরা আশা করছি, ইসি ডিএনসিসি নির্বাচন সুষ্ঠু করার চেষ্টা করবেন এবং যে আইনগুলো রয়েছে, সেগুলো প্রয়োগ করবেন। সম্পূর্ণ দল নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন করার ব্যবস্থা করবেন- বলেন ফখরুল।

 

উল্লেখ্য, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপ-নির্বাচন  এবং এই সিটির সঙ্গে নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ড এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সঙ্গে যুক্ত হওয়া নতুন ১৮টি ওয়ার্ডে সাধারণ নির্বাচন ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ১৮ জানুয়ারি নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে ইসির মিডিয়া সেন্টারে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা তফসিল ঘোষণা করে এ তথ্য জানান।


সিইসি জানান, রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ১৮ জানুয়ারি,  যাচাই বাছাই ২১ ও ২২ জানুয়ারি, প্রত্যাহার ২৯ জানুয়ারি,  প্রতীক বরাদ্দ ৩০ জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ করা হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

 

উপনির্বাচনের জন্য মেয়র পদে হালনাগাদ তথ্য: বর্তমানে ডিএনসিসিতে সাধারণ ওয়ার্ড  ( আগের ৩৬+ সংযুক্ত নতুন ১৮) ৫৪টি; সংরক্ষিত ওয়ার্ড (আগের ১২+ নতুন ৬) ১৮টি; ভোটকেন্দ্র ( আগের ১০৯৩+ নতুন ২৫৬) ১৩৪৯টি (সম্ভাব্য); ভোটকক্ষ ৭৫১৬টি (সম্ভাব্য); অস্থায়ী ভোটকক্ষ (আগের ২৭৭+ নতুন ৬৮) ৩৪৫টি (সম্ভাব্য)। 


এ ছাড়া ডিএনসিসিতে বর্তমান ভোটার সংখ্যা ২৯ লাখ ৪৮ হাজার ৫৯০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৫ লাখ ২২ হাজার ৭২৬ জন এবং নারী ভোটার ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৭৮৪ জন। এর আগে ২০১৫ সালের নির্বাচনে এই সিটিতে মোট ভোটার ছিল ২৩ লাখ ৪৫ হাজার ৩৭৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ছিল ১২ লাখ ২৪ হাজার ৭০১ জন এবং নারী ভোটার ছিল ১১ লাখ ২০ হাজার ৬৭৩ জন।


নতুন ৩৬টি ওয়ার্ডের তথ্য: ঢাকা উত্তর-দক্ষিণে নতুন সাধারণ ওয়ার্ড ৩৬ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১২। মোট ভোটার ১০,৫৩,৯৯৪, সম্ভাব্য কেন্দ্র ৪৮৭।


ঢাকা উত্তরের নতুন ১৮ ওয়ার্ডে সম্ভাব্য ভোট কেন্দ্র ২৫৬; ভোটকক্ষ ১৬৪৮; ভোটার ৫ লাখ ৭৮ হাজার ১৬২ জন (পুরুষ ২,৯২,৪৮৫ নারী ২,৮৫,৬৭৭)। 


ডিএসসিসির (ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন) সম্প্রসারিত ১৮টি ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২৩৩টি; ভোটকক্ষ ১২৪০টি, অস্থায়ী ভোটকক্ষের সংখ্যা ৫৬টি। এসব ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৭৭ হাজার ৫১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৪৫ হাজার ৪১৬ জন এবং নারী ভোটার ২ লাখ ৩২ হাজার ০৯৪ জন। 


প্রসঙ্গত, গত ২০১৫ সালে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে উত্তর সিটি কর্পোরেশনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে মেয়র নির্বাচিত হন ব্যবসায়ী নেতা আনিসুল হক। 


লন্ডনে সাড়ে চার মাসেরও বেশি সময় ধরে চিকিৎসাধীন থাকার পর গত ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ২৩ মিনিটে লন্ডনের ওয়েলিংটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে ৪ ডিসেম্বর সোমবার এই পদ শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

 

আইন অনুযায়ী ৯০ দিন অর্থাৎ ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ উপ-নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে ইসির। এ ছাড়া দুই সিটির আশপাশের ইউনিয়নযুক্ত করে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে ১৮টি করে মোট ৩৬টি ওয়ার্ড গঠন করে স্থানীয় সরকার বিভাগ। এরপর গত ৮ আগস্ট এসব ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট করতে ইসিকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 


Top