৪২ কোটি টাকার গোবর ক্রয়! | daily-sun.com

৪২ কোটি টাকার গোবর ক্রয়!

ডেইলি সান অনলাইন     ৮ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:২২ টাprinter

 ৪২ কোটি টাকার গোবর ক্রয়!

চলতি বছরের মধ্যে ৪২ কোটি টাকার গোবর কেনার পরিকল্পনা করেছে ভারতীয় রেল মন্ত্রণালয়। রেলের বায়ো টয়লেটগুলো সংস্কারের জন্যই এই গোবর কেনা হবে।

সম্প্রতি রেল মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর এবেলার।

গোবর কেনার জন্য ভারতের রেল মন্ত্রণালয় বছরে অনেক টাকা খরচ করে থাকে। কিন্ত এ বছর টাকার অঙ্ক অনেক বেশি। এজন্য যাত্রীদের দায়ী করছে রেল কর্তৃপক্ষ।

 

 

রেললাইন পরিষ্কার রাখার জন্য কয়েক বছর আগে ‘বায়ো টয়লেট’ চালু করেছিল রেল। ইতিমধ্যেই দেশটির বহু ট্রেনে পরিবেশ সহায়ক এই টয়লেট বসানো হয়েছে। ২০১৯ সালের মধ্যে দেশের সব ট্রেনে এটি চালু করার কথাও জানানো হয়েছে। তবে যাত্রীরা ঠিকমতো ব্যবহার না করার ফলে বায়ো টয়লেটগুলো সংস্কারের জন্য বেশি টাকা খরচ হচ্ছে রেলের।

 

 

জানা যায়, আগে কামরার শৌচাগারগুলো থেকে বর্জ্য সরাসরি রেললাইনে জমা হতো। বায়ো টয়লেট আসার পরে আর এমনটা হয় না। কামরার শৌচাগারের নিচেই একটি বড় চেম্বার থাকে, যেখানে বর্জ্যগুলো এসে জমা হয়। ওই চেম্বারের মধ্যে থাকে ‘ইনোকুলাম’ নামের একধরনের জৈবিক সার, গোবর এবং পানি। এই তিনের মিশ্রণ বর্জ্যগুলোকে বায়ো গ্যাসে রূপান্তরিত করে বাইরে বের করে দেয়। অবশিষ্টাংশ জল হিসেবে লাইনে পড়ে। স্বাভাবিকভাবেই লাইন পরিষ্কার থাকে।

 

 

কিন্তু যাত্রীরা শৌচাগারের মধ্যে বোতল ও অন্যান্য সরঞ্জাম ফেলে আসার কারণে এই বায়ো টয়লেটগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অনেক সময় চেম্বার লিক হয়ে যাচ্ছে। ফলে বর্জ্যগুলো গ্যাসে রূপান্তরিত হওয়ার বদলে রেললাইনে জমা হচ্ছে। এর সমাধান খুঁজছে রেল। পাশাপাশি চেম্বারে এবার গোবরের পরিমাণ বাড়াচ্ছে রেল, যাতে বর্জ্যগুলো গ্যাসে রূপান্তরিত হওয়ার প্রক্রিয়াটি আরও দ্রুত হয়।

 


Top