বিয়েতে কত খরচ করলেন বিরুশকা | daily-sun.com

বিয়েতে কত খরচ করলেন বিরুশকা

ডেইলি সান অনলাইন     ৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ২০:২৩ টাprinter

বিয়েতে কত খরচ করলেন বিরুশকা

জাকজমকে টোপর মাথায় দিয়ে বিয়ে করলেন। গল্প-উপন্যাসের চরিত্রের মতো। সিনেমার নায়ক-নায়িকার মতো। তবে সিনেমা-উপন্যাসের বানানো চিত্রনাট্য নয়, একদমই বাস্তবের জীবনধর্মী স্ক্রিপ্ট মেনে।

জৌলুসে বিরাট-আনুশকার বিয়ে টেক্কা দিয়েছে পৃথিবীজোড়া তাবড় তাবড় সেলিব্রিটিদেরও। ঠিক কত টাকা খরচ করলেন বিরাট-আনুষ্কা তাঁদের স্বপ্নের বিয়ের অনুষ্ঠানে? 

 

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রচারমাধ্যম ঘেঁটে যে তথ্য উঠে আসছে, তাঁর নির্যাস বিশাল অঙ্কের খরচ করতে হয়েছে বিরাট-অনুষ্কাকে। বিরুষ্কা যেখানে বিয়ে করলেন সেই বিলাসবহুল বোর্গো ফিনোচ্চেইতো ফোর্বসের তালিকা অনুযায়ী, বিশ্বের দ্বিতীয় দামি ছুটি কাটানোর স্থান। সেখানেই বলা হয়েছে, এক সপ্তাহ সেই প্রাসাদ ভাড়া করার অর্থ ন্যূনতম প্রায় এক কোটি টাকা। সেই প্রাসাদেই এক রাত থাকার খরচ ৬ লাখ ৫০ হাজার থেকে ১৪ লাখ টাকা।

 

স্বপ্নের বিবাহবাসরের আগেই ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধব এবং আত্মীয় স্বজনদের উপস্থিতিতে আংটি বদল হয়েছিল দুই সেলিব্রিটি তারকার। সর্বভারতীয় প্রচারমাধ্যমের সূত্র বলছে, অস্ট্রিয়ার এক ডিজাইনারের রূপায়ণ করা হিরেই বিরাট পছন্দ করেছিলেন আনুষ্কার সঙ্গে এনগেজমেন্ট রিং হিসেবে।

নক্ষত্রখচিত সেই হিরে বিভিন্ন কৌণিক প্রান্ত থেকে এক এক রকম দেখতে লাগে। সেই হিরের দাম ১ কোটি টাকা।

 

বিয়ের সমস্ত ছবি তোলার দায়িত্বে রাখা হয়েছিল বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ওয়েডিং ফটোগ্রাফার জোসেফ রাধিককে। মনে করা হয় ভিডিও ও স্থিরচিত্র মিলিয়ে বিরাটের বিয়েতে শুধু ফটোগ্রাফি বাবদই খরচ করা হচ্ছে ২ কোটি টাকা।

 

বিয়ের আনুষঙ্গিক খরচ আরও কয়েক কোটি টাকা। পাশাপাশি দেশে ফিরে জোড়া রিশেপশন পার্টি তো রয়েইছে। সবমিলিয়ে বিয়ে বাবদ বিরাটের খরচ হয়েছে বেশ কয়েক কোটি টাকা।

বিরাটের বিয়ের পুরোটাই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল ‘শাদি স্কোয়াড’ নামের এক বিয়ের আয়োজক সংস্থাকে। এতটাই গোপনীয়তা রাখা হয়েছিল যে সংস্থার অনেক উচ্চপদস্থ পদাধিকারীরাও জানতেন না, তাঁদের ক্লায়েন্ট কে। স্রেফ বোঝা গিয়েছিল, খানদানি মক্কেলের বিয়ের আয়োজন করতে হবে ইতালিতে।

 

বিরাটের জোড়া রিসেপশনের জন্য যেসব হাইপ্রোফাইল অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে, তাঁদের কার্ডের সঙ্গে পাঠানো হচ্ছে কয়েক লাখি ড্রাই ফ্রুটসের প্যাকেট।

বিরাটের বিয়ের ছবি ও ভিডিও বেচে দেওয়া হচ্ছে দেশের একটি বিনোদন ম্যাগাজিন এবং সম্প্রচারকারী চ্যানেলকে। মনে করা হচ্ছে, বিয়ের সমস্ত ছবির এক্সক্লুসিভ রাইটস বেচে বেশ কিছুটা পয়সা উসুল করে নিতে পারবেন বিরাট-আনুষ্কা।

 

তবে কতটা ট্যাঁকের জোর থাকলে এই বিলাসবহুল বিয়ের আসরের আয়োজন করা যায়? 

বিয়ের পর আপাতত ব্র্যান্ড ‘বিরুষ্কা’তে নজর দেশের বানিজ্যিক জগতের। ক্রিকেট ও এনডোর্সমেন্ট থেকে বিরাট বার্ষিক আয় করেন ১২০ কোটি টাকার মতো। এর মধ্যে বোর্ডের নিয়ম মেনে প্রতিটি টেস্ট, ওয়ান ডে এবং টি টোয়েন্টি মিলিয়ে বিরাট পেয়ে থাকেন যথাক্রমে ৫ লাখ, ৬ লাখ এবং ২ লাখ টাকা। অন্যদিকে, অনুষ্কা প্রতিটি ছবির জন্য পান ১০ কোটি টাকা। এর উপর তিনিও বিভিন্ন ব্র্যান্ড প্রমোশন করে কোটি টাকা রোজগার করেন।

 

এমন ‘ধনী’ দম্পতি যে নিজেদের হাইপ্রোফাইল বিয়ের জন্য কোটি-কোটি টাকা খরচ করবেন, তা আর আশ্চর্য কি!

 


Top