বিমানের ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন | daily-sun.com

বিমানের ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

প্রেস রিলিজ     ৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:৫৪ টাprinter

বিমানের ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

 

 জাতীয় পতাকাবহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আজ (বৃহস্পতিবার) ৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। ১৯৭২ সালের ৪ঠা জানুয়ারী শুরু হয় বিমানের যাত্রা।

দেশমাতৃকার স্বাধীনতার ৪৬ বছর আর বিমান প্রতিষ্ঠার  ৪৬ বছর পূর্তি একই সাথে উদযাপিত হচ্ছে। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীনের পরেই উপলদ্ধি করতে পেরেছিলেন যে, একটি স্বাধীন দেশ ও জাতির জন্য তার একান্ত নিজস্ব একটি পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স প্রয়োজন। আর তার স্বপ্নের এই পথ ধরে দেশ স্বাধীন হবার মাত্র ১৯ দিনের মাথায় জন্ম নেয় জাতির স্বপ্ন বাহন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

 

প্রতিষ্ঠার চার দশকের  পর থেকে  বিমান দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও সামাজিক দায়বদ্ধতার ক্ষেত্রে এক অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। দেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম প্রধান খাত রেমিটেন্সের সাথে জড়িত প্রবাসী বাংলাদেশীরা, আর বিশ্বের নানা প্রান্তে কর্মরত অভিবাসী বাংলাদেশীদের পরিবহনে বিমান সবসময়ই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। এছাড়াও বিশ্বের আন্তর্জাতিক সংকটে, যুদ্ধাবস্থায়, বিপদগ্রস্থ বাংলাদেশী কর্মীদেরকে দ্রুততম সময়ে দেশে ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি বাংলাদেশ বিমান বিভিন্ন গন্তব্যস্থল থেকে প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশী নাগরিকদের মরদেহ বিনামূল্যে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেশে বয়ে এনে জাতীয় সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসাবে এক উজ্জ¦ল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে।

 

৪৬ বছর পূর্তির এই শুভ লগ্নে বিমান এক নবযুগে প্রবেশ করছে। তার বহরে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত নতুন উড়োজাহাজ বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার সংযোজনের মাধ্যমে। স্টেট অব দ্যা আর্ট টেকনোলজির ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজে যাত্রীরা সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ৪৩ হাজার ফিট উচ্চতায় ভ্রমণকালীন সময়ে ওয়াই ফাই সুবিধা পাবেন এবং বিশ্বেও যেকোন প্রান্তে প্রিয়জনের সাথে ফোনে কথা বলতে পারবেন। একই সাথে এই উড়োজাহাজে থাকছে বিশ্বমানের ইন-ফ্লাইট এন্টারটেইনমেন্ট সিস্টেম(আই এফ ই)। যেখানে যাত্রীগনের জন্য থাকছে ক্লাসিক থেকে ব্লকবাস্টার মুভি, বিভিন্ন ঘরানার মিউজিক, ভিডিও গেমস সহ বিশ্বের খ্যাতনামা ০৯টি টিভি চ্যানেলের রিয়াল টাইম লাইভ স্ট্রিমিং, অনলাইন কেনাকাটার সুবিধা, ক্রেডিটকার্ড/ক্যাশ পেমেন্ট অনবোর্ড  ডিউটি ফ্রি শপ সহ বিনোদনের ব্যাপক আয়োজন।

 

শতকরা ২০ ভাগ জ্বালানী সাশ্রয়ী বিমানের নবতর সংযোজন ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজে থাকছে ২৪ টি বিজনেস ক্লাস এবং ২৪৭ টি ইকোনমি ক্লাস সহ সর্বমোট ২৭১ টি আসন। তুলনামূলক বড় জানালা নির্জন ও শান্ত কেবিন, মুড লইট ইত্যাদি কারনে এই উড়োজাহাজে ভ্রমণকারী যাত্রীরা পাবেন সতেজ ও আনন্দময় অভিজ্ঞতা।

 

 

৪৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, ২০১৮ সালে বিমান বহরে ০২ টি নতুন বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি নতুন গন্তব্যে বিমান তার ডানা প্রসারিত করতে চায়। তিনি বলেন বিমান এ বছর চীনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক নগরী গুয়াংজু, শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বো এবং মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে তার নেটওয়ার্ক সম্প্রসারনের উদ্দ্যোগ নিয়েছে।

 

বিমান মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজ জানান, বিগত ৪৬ বছরে বিমান ৫কোটি ২৫ লক্ষ যাত্রী পরিবহন করেছে। সদ্য বিদায়ী অর্থবছর অর্থাৎ ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বিমান নীট মুনাফা অর্জন করেছে ৪৭ কোটি টাকা একই সময়ে রাষ্ট্রিয় কোষাগারে বিমান ৩৮১ কোটি টাকা রাজস্ব প্রদান করেছে। বিদায়ী অর্থবছরে বিমান যাত্রী পরিবহন করেছে ২৩ লক্ষ ৫১ হাজার এবং কার্গো পরিবহন করেছে ৩৩ হাজার ৫৪২ মেঃ টন ।বিমান বহওে বর্তমানে রয়েছে ৪টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, ২টি বোয়িং ৭৭৭-২০০ ইআর, ২টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ২টি ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ এবং ১টি এয়ারবাস এ৩৩০ উড়োজাহাজ। বিমান এখন ১৫ টি আন্তর্জাতিক এবং ৭টি অভ্যন্তরীণ ষ্টেশনে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিমান প্রধান কার্যালয় বলাকায় কর্মী সমাবেশ, কেক কাটা এবং ঢাকা থেকে বহিঃগামী সকল ফ্লাইটের যাত্রীদের শুভেচ্ছা উপহার প্রদানের কর্মসূচী রয়েছে।

 

 


Top