ব্যথানাশক থেকে নেশায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা | daily-sun.com

ব্যথানাশক থেকে নেশায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা

ডেইলি সান অনলাইন     ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৩:০৮ টাprinter

ব্যথানাশক থেকে নেশায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা

নানা রোগ বা শারীরিক জটিলতায় ব্যথা কমানোর জন্য চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী পেইনকিলার ব্যবহার করলেও তা ক্রমে নেশায় আসক্তির কারণ হতে পারে। সম্প্রতি জানা গেছে, চিকিৎসকদের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী মাত্রাতিরিক্ত পেইনকিলার সেবন রোগীদের হেরোইন আসক্তির দিকে নিয়ে যেতে পারে।

 

আর এক্ষেত্রে সবচেয়ে ঝুঁকির মাঝে রয়েছে নারীরা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে এনডিটিভি। 
বিশ্বের নানা দেশে হেরোইনের মতো মাদক ব্যবহারের হার ক্রমে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। আর এ বৃদ্ধির পেছনে অন্যতম কারণ হলো সার্জারি বা অনুরূপর কোনো কারণে চিকিৎসকের মাত্রাতিরিক্ত পেইনকিলার গ্রহণ। কানাডা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এ সমস্যার বৃদ্ধি চিকিৎসকদের ভাবিয়ে তুলেছে। আর এতে বিপুল সংখ্যক নারীরাও নানা নেশায় আক্রান্ত হচ্ছেন। 



চিকিৎসকরা বলছেন, এ পেইনকিলারই রোগীদের হেরোইন আসক্তির দিকে নিয়ে যায়। অর্থাৎ চিকিৎসক পেইনকিলার প্রদান বন্ধ করে দিলেও রোগী তা চালিয়ে যাওয়ার জন্য আগ্রহী হন। এ ক্ষেত্রে পেইনকিলারের বদলে অনেকেই হেরোইন গ্রহণ করেন। এ ছাড়া হেরোইনের দাম কমাও গ্রহণের মাত্রাও বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ।

 

 
যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় চার মিলিয়ন মানুষ অন্তত একবার হেরোইন গ্রহণ করেছে। তাদের মধ্যে প্রায় ২৫ শতাংশ এতে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। কয়েক ধরনের পেইনকিলার থেকে হেরোইনের এ নেশার উদ্রেক হতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে পার্কোসেট ও অক্সিকোনটিন। এগুলো অল্পসময়ের ব্যথা যেমন সার্জারির পর ব্যবহৃত হয়। তবে এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির পর এ পেইনকিলার প্রদানের হার কমানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকরা যদি নির্দিষ্ট কয়েক ধরনের পেইনকিলার ব্যবহার না করেন তাহলে হেরোইনের এ নেশার বিস্তার কমানো সম্ভব বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।


Top