সৌদিতে খালেদা জিয়ার অবৈধ সম্পদ প্রমাণ করা যাবে: অর্থমন্ত্রী | daily-sun.com

সৌদিতে খালেদা জিয়ার অবৈধ সম্পদ প্রমাণ করা যাবে: অর্থমন্ত্রী

ডেইলি সান অনলাইন     ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৬:৪৪ টাprinter

সৌদিতে খালেদা জিয়ার অবৈধ সম্পদ প্রমাণ করা যাবে: অর্থমন্ত্রী

 

সৌদি আরবে খালেদা জিয়ার অবৈধ সম্পদ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী যে অভিযোগ করেছেন নিশ্চয়ই তার পেছনে যথেষ্ট তথ্য আছে এবং সেটা প্রমাণ করা যাবে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপি চেয়ারপার্সন এর উকিল নোটিশ দেওয়া ঠিক হয়নি।


শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, উকিল নোটিশ উকিলরাই দেখবেন, আইনগতভাবে তার জবাব দেওয়া হবে।


বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য প্ররফেসর ড. মো. গোলাম শাহী আলম, সিলেট-৩ আসনের সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব, জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আবদুল মোমেন, রূপালী ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ড. আহমদ আল কবীর, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ প্রমুখ।

 


কম্বোডিয়া সফর সম্পর্কে অবহিত করতে গত ৭ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুলের এক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, সৌদিতে খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার বিশাল শপিংমল ও সম্পদ পাওয়ার খবর বিদেশ থেকে এসেছে। টাকা পাচার, মানিলন্ডারিং  বিএনপি এবং খালেদা জিয়ার ছেলেরা করেছে।


এরপরের দিন গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ওই বক্তব্য মানহানিকর, মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেন এবং অবিলম্বে এই ধরনের মানহানিকর মিথ্যা বক্তব্য প্রত্যাহার করে খালেদা জিয়া এবং জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।   


এর পরে ২০ ডিসেম্বর বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার ও ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়ে উকিল নোটিশ দেয়।

আওয়ামী লীগ এক সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার ওই উকিল নোটিশ আইনিভাবে মোকাবেলার কথা জানিয়েছে।


উকিল নোটিশ পাওয়ার পর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দুর্নীতির টাকা থেকে প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর মুনাফা পেয়ে থাকেন খালেদা জিয়া। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতির লজ্জা ঢাকতেই প্রধানমন্ত্রীকে উকিল নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

 


Top