‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক’ নামকরণে ঘোরতর আপত্তি প্রধানমন্ত্রীর! | daily-sun.com

‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক’ নামকরণে ঘোরতর আপত্তি প্রধানমন্ত্রীর!

ডেইলি সান অনলাইন     ১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:২১ টাprinter

‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক’ নামকরণে ঘোরতর আপত্তি প্রধানমন্ত্রীর!

‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, এই হাইটেক পার্কের নামকরণে নিজ নাম ব্যবহারের ক্ষেত্রে সব সময় আপত্তি করেছিলেন তিনি।

 

নামকরণের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমার নামে কেন দেয়া হয়েছে… আমি সব সময় আপত্তি করেছি… এখানে আমার বলার কিছু নেই।

 

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের আগে নামকরণের বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বার বার নিষেধ করেছেন এটি তার নামে না করতে। কিন্তু আমরা আমাদের দেশের প্রথম সরকারের দ্বারা নির্মিত সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ককে স্মরণীয় করে রাখার জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা তার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) স্মরণে, তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আমরা এই পার্কটির নামকরণ করেছি।’

 

পলক আরও বলেন, ‘যশোরের সংসদ সদস্য আমাদের স্ট্যান্ডিং কমিটি, সাধারণ জনগণ সকলের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা এটি করতে বাধ্য হয়েছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।’

 

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালি’র আদলে গড়ে তোলা হয়েছে ‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। ’ দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে আইসিটি শিল্পের সুষম বিকাশ ও উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এই পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে।

 

পার্কে আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধাসহ ১৫-তলা মাল্টি-টেন্যান্ট বিল্ডিং (এমটিবি) স্থাপন করা হয়েছে।

 

এখানে জায়গার পরিমাণ ২ লাখ ৩২ হাজার বর্গফুট। আন্তর্জাতিক থ্রি-স্টার মানের আবাসন ও জিমনেসিয়ামের সুবিধাসহ ১২-তলা ডরমিটরি বিল্ডিং, একটি ক্যান্টিন ও এম্ফিথিয়েটার, ৩৩ কেভিএ পাওয়ার সাব-স্টেশন, অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল সংযোগ এবং অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিস রয়েছে। মূল ভবনের পাশে ৫ একরের বিশাল জলাধার রয়েছে এবং চারপাশে সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলা হয়েছে।

 

ইতোমধ্যে দেশি-বিদেশি ৪০টি কোম্পানিকে স্পেস বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এই পার্কে প্রায় ৫ হাজার লোকের প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে ।


Top