খালেদা জিয়া কেমন ক্ষমাপ্রবণ তার প্রমাণ ২১ আগস্ট: কাদের | daily-sun.com

খালেদা জিয়া কেমন ক্ষমাপ্রবণ তার প্রমাণ ২১ আগস্ট: কাদের

ডেইলি সান অনলাইন     ১০ নভেম্বর, ২০১৭ ১৭:৪১ টাprinter

খালেদা জিয়া কেমন ক্ষমাপ্রবণ তার প্রমাণ ২১ আগস্ট: কাদের

 

শেখ হাসিনার সমাবেশে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া তার ক্ষমার অনন্য নজির রেখেছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আপনি (খালেদা জিয়া) কেমন ক্ষমাপ্রবণ ব্যক্তি তার প্রমাণ তো ২১ আগস্ট রেখেছেন। শেখ হাসিনাকে যিনি খুন করতে চেয়েছিলেন তিনি কি ক্ষমা করতে পারেন? একি শুনি মন্থরার মুখে।


শুক্রবার (১০ নভেম্বর) দুপুরে জামালপুর-মাদারগঞ্জ সড়কে ৩টি সেতু উদ্বোধনে যাওয়ার পথে মেলান্দহে হাজরাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের পথসভায় তিনি একথা বলেন। 


ওবায়দুল কাদের বলেন, মামলা নিষ্পত্তি আদালতের বিষয়। তবে বেগম জিয়া গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে বলেছেন তিনি শেখ হাসিনাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। কিন্তু, প্রশ্ন হলো, আপনার কাছে শেখ হাসিনা ক্ষমা চাইবেন কেন? তিনি কি অপরাধ করেছেন?


এই আওয়ামী লীগ নেতা আরও বলেন, শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জনগণ ও নিজের বিবেক ছাড়া কারও কাছে মাথা নত করেন না।


তিনি বলেন, আজ শহীদ নূর হোসেন দিবস। যে ছেলেটি বুকে গণতন্ত্র মুক্তি পাক, পিঠে স্বৈরাচার নিপাত যাক স্লোগান লিখে রক্ত দিয়েছিল। সেদিন নূর হোসেন ছিল ৩ জোটের রূপরেখার সৈনিক। সব রাজনৈতিক দলের সম্পদ।


আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে আর মুক্তিযোদ্ধাদের বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে এবং শেখ হাসিনাকে বাঁচাতে হবে। মির্জা আজম এমপি যেমন জামালপুরের অনেক উন্নয়ন করছেন এবং বহু উন্নয়ন কর্মকাণ্ড শুরু করা হয়েছে। এসব চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সমাপ্ত করতে এদেশে শেখ হাসিনার সরকার আরেক বার দরকার। শেখ হাসিনাকে আরেকবার ক্ষমতায় রাখতে হবে। তাই আগামী নির্বাচনে আবারও শেখ হাসিনার নৌকা প্রতিকে ভোট দিবেন।


তিনি বলেন, বিএনপি আবোলতাবোল বলছে। কখনো বলে তত্ত্বাবধায়ক, কখনো বলে সহায়ক সরকার। যেন মামার বাড়ির আবদার। সংবিধানে যা আছে, অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো বর্তমান সরকারের অধীনেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।


এ সময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির কবির নানক, পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজমসহ আওয়ামী লীগের জেলা ও থানা পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


পথসভা শেষে জামালপুর-মাদারগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে দাঁতভাঙ্গা সেতু, ঝাড়কাটা নদী সেতু ও কালু মন্ডলের দহ সেতু নির্মাণকাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। পরে পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজমের মা মোছা. নুরুন্নাহার বেগমের চেহলামে অংশ নেন তিনি।


সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দুপুর সাড়ে ১১টায় হেলিকাপ্টারে হাজরাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অবতরণ করেন। কর্মসূচি শেষে বিকেল তিনটায় তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন।

 


Top