অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে নূর হোসেন আজও অনুপ্রেরণা দেন: রিজভী | daily-sun.com

অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে নূর হোসেন আজও অনুপ্রেরণা দেন: রিজভী

ডেইলি সান অনলাইন     ১০ নভেম্বর, ২০১৭ ১২:৫০ টাprinter

অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে নূর হোসেন আজও অনুপ্রেরণা দেন: রিজভী

- ফাইল ফটো

 

গণতন্ত্র আজ অবরুদ্ধ ও বুটের তলায় পিষ্ট বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে নূর হোসেন আজও আমাদের অনুপ্রেরণা দেন। শুক্রবার (১০ নভেম্বর) সকালে গুলিস্তানে শহীদ নূর হোসেন চত্বরে বিএনপির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।


রিজভী বলেন, গণতন্ত্রের কন্ট্রোল সুইচ আওয়ামী লীগের হাতে থাকলে সেটাকে তারা যতই গণতন্ত্র বলুক আসলে এটি গণতন্ত্র নয়, স্বৈরতন্ত্র। আমরা বহু দল, বহু মতের গণতন্ত্র চাই। ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে বলেও মন্তব্য করেন রুহুল কবির রিজভী।


এর আগে সকালে দিনের একই কর্মসূচিতে অংশনিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, নুর হোসেন গণতন্ত্রের জন্য নিজের রক্ত দিয়ে গেছেন। জীবন দিয়ে গেছেন। নুর হোসেনের স্বপ্নের গণতন্ত্র মুক্তি পেয়েছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ায় প্রমাণ হয়েছে, আওয়ামী লীগ কতটা গণতান্ত্রিক; কতটা আন্তরিক।


ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগ চায়, বিএনপিসহ সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন। তবে আওয়ামী লীগ আহ্বান জানালেও বিএনপি আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে, না জানালেও করবে।


এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের রুহুল কবির রিজভী বলেন, বিএনপি অবশ্যই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। তবে আমরা নির্দলীয় সহায়ক সরকার চাই, সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ চাই। নীল নকশার নির্বাচনে বিএনপি যাবে না।

 

উল্লেখ্য, ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর তৎকালীন সেনাশাসিত সরকার হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চলাকালে পুলিশের গুলিতে নূর হোসেন নিহত হন। যা তখন এরশাদ সরকারের পতনে এক ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছিল।


এরপর থেকেই দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠন তার মৃত্যুর এই দিনকে বিভিন্ন কর্মসুচির মাধ্যমে পালন করে আসছে। এরই অংশ হিসেবে শুক্রবার নূর হোসেন চত্বরে সম্মান জানাতে যান রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা।


এ সময় রিজভীর সাথে বিএনপি ও তাদের সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 

 


Top