স্থল নিম্নচাপে বৃষ্টিপাত, নিম্নাঞ্চল জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে | daily-sun.com

স্থল নিম্নচাপে বৃষ্টিপাত, নিম্নাঞ্চল জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে

ডেইলি সান অনলাইন     ২০ অক্টোবর, ২০১৭ ১০:৫৭ টাprinter

স্থল নিম্নচাপে বৃষ্টিপাত, নিম্নাঞ্চল জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে

 

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি স্থল নিম্নচাপে রূপ নিয়েছে। এর প্রভাবে উপকূলীয় অঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শুক্রবার (২০ অক্টোবর) সকালে আবাহওয়া অধিদফতরের এক সতর্ক বার্তায় এসব কথা বলা হয়।


এদিকে নিম্নচাপের কারণে সাগর উত্তাল থাকায় সমুদ্রবন্দর সমূহকে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত বহাল রেখেছে আবহাওয়া অধিদফতর। আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (নং-২) বলা হয়েছ, পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি উত্তর-উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। এটি সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৮১০ কি. মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৭৫ কি. মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৬৭০ কি. মি. দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৬৭৫ কি. মি. দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্তান করছিল। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর/উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।


বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কি. মি. এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কি. মি.। যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কি. মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে। এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর সমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।


এ ছাড়াও উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেই সাথে তাদের গভীর সাগরে বিচরণ না করতেও বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।


তা ছাড়াও শুক্রবার রাত ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদী বন্দরসমূহে স্থানভেদে ১ ও ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণপূর্ব/পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০-৮০ কি. মি. বেগে অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সেই সাথে বজ্র বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরসমূহকে ২ নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্রে একই দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি. মি. বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টি বা বজ্র বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরসমূহকে ১ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


Top