টিভি ক্যামরায় মুখ দেখানো নিয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের হাতাহাতি | daily-sun.com

টিভি ক্যামরায় মুখ দেখানো নিয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের হাতাহাতি

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৯:২৮ টাprinter

টিভি ক্যামরায় মুখ দেখানো নিয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের হাতাহাতি

 

আদালত প্রাঙ্গণে টিভি ক্যামরায় নিজের উপস্থিতি জানান দিতে এবারও নিজেদের মধ্যে হাতাহাতি করেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের অস্থায়ী এজলাস প্রাঙ্গণে এ ঘটনা ঘটেছে।


এ দিন এক লাখ টাকা মুচলেকায় জিয়া চ্যারেটেবল ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিশেষ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। জামিন পেয়ে তিনি আদালত ছাড়ার পরপরই আইনজীবীদের মধ্যে হাতাহাতির এ ঘটনা ঘটে। খালেদা জিয়ার মামলার বিষয়ে গণমাধ্যমে কে বক্তব্য দেবেন, তা নিয়ে এ হাতাহাতির সূত্রপাত হয়েছে বলে জানা যায়।


প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, সাংবাদিকদের সামনে আদালতের কার্যক্রম তুলে ধরার সময় খালেদা জিয়ার দুই আইনজীবী খোরশেদ আলম ও মির্জা আল-মাহমুদের মধ্যে প্রথমে ধাক্কাধাক্কি হয়। পরে হাতাহাতিতে রূপ নেয় তা। এ সময় খোরশেদ আলম ও তার অনুসারীরা আল মাহমুদকে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন এবং তাকে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ থেকে বের করে দেন। এ সময় মির্জা আল মাহমুদের জামা ছিড়ে যায় এবং জুতা মাদ্রাসার মাঠে থেকে যায়।


এক পর্যায়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন, সাবেক সভাপতি ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদিন, সানাউল্লাহ মিয়াসহ অন্যদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।


খালেদা জিয়ার আইনজীবী খোরশেদ আলম পরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি দাঁড়িয়েছিলাম মির্জা আল মাহমুদ কনুই দিয়ে আমাকে ধাক্কা দেন। এ সময় আমাকে লাথিও মারেন।’


ঢাকা জজকোর্টের এসি (প্রসিকিউশন) আমিনুর রহমান জানিয়েছেন, বিএনপির উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের থামায়।

 


Top