ইউএস-বাংলার গন্তব্য এখন মধ্যপ্রাচ্যের দোহা | daily-sun.com

ইউএস-বাংলার গন্তব্য এখন মধ্যপ্রাচ্যের দোহা

ডেইলি সান অনলাইন     ৪ অক্টোবর, ২০১৭ ১৫:২১ টাprinter

ইউএস-বাংলার গন্তব্য এখন মধ্যপ্রাচ্যের দোহা


 ১লা অক্টোবর  থেকে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবসা সম্প্রসারনের ধারাবাহিকতায় মধপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য কাতারের রাজধানী দোহায় ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে। প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে চার দিন ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে দোহা রুটে ফ্লাইট পরিচালিত হবে।
ঢাকা-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ২৪,৩৫০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ৪০,২০৩ টাকা নির্ধারন করা হয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রাম-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ২৫,৩১৭ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ৪১,১৭১ টাকা নির্ধারন করা হয়েছে। ভাড়ায় সকল ধরনের ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভূক্ত। প্রাথমিকভাবে সোম, বুধ, শুক্র ও রবিবার ঢাকা থেকে সন্ধ্যা ৬ টায় এবং চট্টগ্রাম থেকে ৭টা ৩০ মিনিটে দোহার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং দোহার স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৩০ মিনিটে পৌঁছাবে। এছাড়া দোহা থেকে সোম, বুধ, শুক্র ও রবিবার স্থানীয় সময় রাত ১১টা ৩০ মিনিটে চট্টগ্রাম ও ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং পরদিন সকাল ৮ টায় চট্টগ্রাম ও সকাল ৯টা ২০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে।   

  
ঢাকা-দোহা-ঢাকা ও চট্টগ্রাম-দোহা-চট্টগ্রাম রুটে ১৬৪ আসনের নতুন যুক্ত হওয়া বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ফ্লাইট পরিচালিত হবে। বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফটে ৮টি বিজনেস ক্লাস, ১৫৬টি ইকোনমি ক্লাস এর আসন ব্যবস্থা রয়েছে।
যাত্র্রা শুরুর এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সকল চালু বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ফ্লাইট পরিচালনা করে সারা দেশের জনগনকে স্বল্পতম সময়ে আকাশপথের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে করেছে সূদৃঢ়। বর্তমানে অভ্যন্তরীণ রুটে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল, রাজশাহী রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরুর দু’বছরের মধ্যে ১৫ মে ২০১৬ তারিখে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মধ্যেমে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে কাঠমান্ডু ছাড়াও ঢাকা থেকে কলকাতা, মাস্কাট, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছে। এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা ও মাস্কাট রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। খুব শীঘ্রই আবুধাবী, জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম, দুবাই, হংকং, গুয়াংজুহ, দিল্লী, চেন্নাইসহ অন্যান্য রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করার পরিকল্পনা করেছে ইউএস-বাাংলা এয়ারলাইন্স।

 


আগামী নভেম্বর মাসের মধ্যে আরো দু’টি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এবং আগামী বছরের শুরুতে আরো দু’টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট ইউএস-বাংলা এয়ালাইন্সের বিমান বহরে যুক্ত হতে যাচ্ছে।
১৭ জুলাই ২০১৪ সালে যাত্রা শুরুর পর থেকে গত তিন বছরে অভ্যন্তরীন ও আন্তর্জাতিক রুটে প্রায় একত্রিশ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স, যা বাংলাদেশে বিমান চলাচলের ইতিহাসে একটি রেকর্ড। ৯৮.৭% অনটাইম ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড নিয়ে সপ্তাহে প্রায় ৩০০টির অধিক ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে ইউএস-বাংলা।  

 


Top