রোহিঙ্গারা হিন্দু কিংবা বৌদ্ধ হলে আশ্রয় দিতেন? : তসলিমা নাসরিন | daily-sun.com

রোহিঙ্গারা হিন্দু কিংবা বৌদ্ধ হলে আশ্রয় দিতেন? : তসলিমা নাসরিন

ডেইলি সান অনলাইন     ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:৩০ টাprinter

রোহিঙ্গারা হিন্দু কিংবা বৌদ্ধ হলে আশ্রয় দিতেন? : তসলিমা নাসরিন

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আগেই মুখ খুলেছেন তসলিমা নাসরিন। এবার ফের একবার বাংলাদেশের সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

 

ট্যুইট করে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, মুসলিম না হয়ে অন্য ধর্মের হলেও কি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিত বাংলাদেশ?

চার লক্ষেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম মিয়ানমার থেকে এসে আশ্রয় নিয়েছে বাংলাদেশে। আর সেই প্রসঙ্গেই মুখ খুলেছেন লেখিকা। তিনি ট্যুইট করে লিখেছেন, 'রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু যদি রোহিঙ্গারা মুসলিম না হয়ে হিন্দু, বৌদ্ধ, ক্রিশ্চান কিংবা জৈন ধর্মাবলম্বী হত? তাহলে কি হত। মানবিকতার জন্য আশ্রয়দান নয়, এটা আসলে ভোটের জন্য। '

 

এর আগে বাংলাদেশের এক সংবাদপত্রেও এই ইস্যুতে প্রতিক্রিয়া দেন তসলিমা। তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বলেছেন, 'আপনি ভোটের জন্য সব করছেন। ভোটের জন্য রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছেন। দেশের মুসলমানদের ভোট পাবেন।

 

রোহিঙ্গারা যদি হিন্দু হতো বা বৌদ্ধ হতো, আপনি কি আশ্রয় দিতেন? খুব সম্ভবত দিতেন না। দেশের ভেতরেই দেশের হিন্দু নাগরিক যখন নির্যাতত হয়, নিজ ভূমি থেকে উচ্ছেদ হয়, যখন ওদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়ে ওদের দেশ ছাড়তে বাধ্য করা হয়, আপনি কি গিয়েছেন ওই নির্যাতিত হিন্দুদের কাছে? এক ফোঁটা চোখের জলও কি ফেলেছেন?

 

 

 সংখ্যাগরিষ্ঠদের ভোট পাওয়ার জন্য আমাকে আমার দেশে ঢুকতে দিচ্ছেন না, সংখ্যালঘুদের প্রতি সহানূভুতি দেখাচ্ছেন না, ব্লগারদের মৃত্যুতে সমবেদনাও জানাচ্ছেন না। কিন্তু অন্য দেশ থেকে আসা শরণার্থীদের জন্য আপনার আবেগ উপচে পড়ছে। ওরা মুসলমান বলেই, অনেকেই নিশ্চিত, ওরা মুসলমান বলেই। শুধু জিততে চাইছেন। শুধু শাসন করতে চাইছেন। যারা ছলে-বলে কৌশলে শুধু নিজের স্বার্থটাই হাসিল করতে চায়, তাদের আমরা কতটা মুক্তকণ্ঠে মানবতাবাদী বলতে পারি!'


Top