শেখ কামাল ছিলেন যুবকদের অনুপ্রেরণার উৎস: রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন | daily-sun.com

শেখ কামাল ছিলেন যুবকদের অনুপ্রেরণার উৎস: রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন

ডেইলি সান অনলাইন     ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:২৩ টাprinter

শেখ কামাল ছিলেন যুবকদের অনুপ্রেরণার উৎস: রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন

 

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল, যুবদের উন্নয়নে নিজেকে উৎসর্গ  করেছিলেন।  ক্রীড়া ও সংস্কৃতি জগতে  যুব সমাজকে  জড়িত করে সুনাগরিক হয়ে গড়ে উঠার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

 

রবিবার (৩ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় লস এঞ্জেলেসে ‘প্রথম শেখ কামাল মেমোরিয়াল মার্কিন ওয়েস্টার্ন রিজিওনাল চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টে’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, শেখ কামাল যুবকদের জন্য ছিলেন পথনির্দেশক ও অনুপ্রেরণার উৎস।'  

 

দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়া, উত্তর ক্যালিফোর্নিয়া, সিয়াটল-ওয়াশিংটন, উটাহ, কলোরাডো এবং অ্যারিজোনা রাজ্যের ছয়টি দল এই টুর্নামেন্টে অংশ নেয় ।

 

রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের পর শেখ কামালের উদ্যোগ এবং অনুপ্রেরনায় ক্রীড়া ও সংস্কৃতি জগতকে পুনরুজ্জীবিত করে আবাহনী ক্রীড়া চক্র ও স্পন্দন শিলপী গোষ্ঠী প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর উপস্থিতি ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক জগতে সু-বাতাস বয়ে আনে ।    

  

ঢাকায় একই আবাসিক এলাকায় বেড়ে ওঠা রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন শেখ কামালের ব্যক্তিগত পরিচিত ছিলেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। জিয়াউদ্দিন ঢাকা কলেজে ইংরেজী শিক্ষক থাকা কালীন ১৯৬৭ থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত শেখ কামাল ছিলেন সেখানকার ছাত্র। সেই সময় দুজনের প্রায়ই দেখা হতো বলেও তিনি স্মৃতি রোমন্থন করেন।

 

রাষ্ট্রদূত স্মৃতিকাতর হয়ে পড়েন এবং বলেন যে শেখ কামাল বহুমুখী প্রতিভাধর একজন মানুষ ছিলেন এবং গবেষণা, ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক বলয়ে অনেক প্রতিভাবান মানুষ নিজ হাতে তৈরি করে দেশকে উপহার দিয়েছিলেন । তিনি বাংলাদেশের জাতির জনকের পরিবারের সদস্য এবং রাজনৈতিক বিশ্বে সুপরিচিত একজন হওয়া সত্ত্বেও এই তিনটি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য নিজেকে নিঃশেষ করেন।  রাজনৈতিক অঙ্গনকে দূরে ঠেলে  তিনি তরুণ উদ্যোক্তাদের সমৃদ্ধি ও শক্তিকে উজ্জ্বল করতে মনোনিবেশ করেন।

 

রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন তার স্কুল জীবনের শুরু থেকে  সরকারি চাকরিতে যোগদান পর্যন্ত ক্রিকেটের সাথে জড়িত ছিলেন এবং তিনি ফার্স্ট ডিভিশনে খেলতেন। শেখ কামালকেও তিনি ফার্স্ট ডিভিশনে খেলতে দেখেছেন । বাংলাদেশের ক্রিকেটকে উন্নত করতে সচেষ্ট শেখ কামালের ধ্যান জ্ঞান ও আবেগ ছিল এই ক্রিকেট অঙ্গনকে জড়িয়ে।  

 

রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন যে, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর শেখ কামালের প্রচণ্ড আগ্রহ দেশটির ক্রীড়াঙ্গনের উন্নয়ন ও অগ্রগতির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। তিনি বলেন, "সেই সময়কার উদ্যোগই আজ বাংলাদেশ ক্রিকেটকে তাঁর লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য গতির বীজ বপন করে দিয়েছে।"     

 

শেখ কামাল স্মারক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বহু ক্রিকেটার পৃষ্ঠপোষক,সংগঠক, সমর্থক এবং দর্শক ও খেলোয়াড়রা অংশগ্রহণ করেন।  

 

 


Top