কুকুর ছানা ধর্ষণের দায়ে ট্যাক্সিচালক অভিযুক্ত | daily-sun.com

কুকুর ছানা ধর্ষণের দায়ে ট্যাক্সিচালক অভিযুক্ত

ডেইলি সান অনলাইন     ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২০:২১ টাprinter

কুকুর ছানা ধর্ষণের দায়ে ট্যাক্সিচালক অভিযুক্ত

ভারতের রাজধানী শহর দিল্লিতে ধর্ষণ থেকে রেহাই নেই কুকুর ছানাদেরও! এবার কুকুরছানাকে ধর্ষণ করে হত্যায় অভিযুক্ত ৩৪ বছর বয়সী এক ট্যাক্সিচালক! ওই ব্যক্তি একটি মেয়ে কুকুর ছানাকে ধর্ষণ করে! অতিরিক্ত রক্তপাতের ফলে মারা যায় কুকুরছানাটি!

 

ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির নারাইনা এলাকায়। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলা হয়েছে, ধর্ষণ ও রক্তপাতের ফলেই কুকুর ছানাটির মৃত্যু হয়েছে। নরেশ কুমার নামের ওই ধর্ষক ট্যাক্সিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন এক পশুপ্রেমী। এই ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগও করেছেন তিনি।

 

অভিযুক্ত নরেশের স্ত্রী জানিয়েছেন, তার স্বামী বিকৃত স্বভাবের। এমনকি তাঁর ওপরও তার স্বামী নরেশ একইভাবে যৌন অত্যাচার করে। স্বামীর বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন নরেশের স্ত্রী।

 

জানা গিয়েছে, ২৫ আগস্ট রাতে নেশার ঘোরে দুই সন্তানের বাবা নরেশ ওই কুকুরছানাটিকে ধর্ষণ করে। কুকুরটিকে এলাকার লোকজন জেনি বলে ডাকতেন। পরে বড় ভাই সুরেশের সাহায্যে কুকুরটিকে একটি বস্তায় ভরে দুই কিলোমিটার দূরে নারাইনা ইন্ডাস্ট্রিয়াল এলাকার একটি নর্দমায় ফেলে দিয়ে আসে নরেশ। স্থানীয় পশুপ্রেমী অভিষেক কুমার কুকুরছানাটিকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

 

এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা নরেশকে চেপে ধরতেই সে অপরাধের কথা স্বীকার করে নেয়।

অভিষেকের অভিযোগের ভিত্তিতে কুকুরটির দেহ তুলে নিয়ে ময়নাতদন্তও করা হয়। পরের দিন অর্থাৎ ২৬ আগস্ট পশু চিকিৎসকরা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট জমা দিলেও, পুলিশ তা দেখাতে চায়নি বলে অভিযোগ। ঘটনার ৪ দিন পর ২৯ আগস্ট মঙ্গলবার এই ঘটনায় অভিষেকের অভিযোগের ভিত্তিতে একটি এফআইআর দায়ের করে পুলিশ।
 

 

সূত্র : ওয়ান ইন্ডিয়া

 


Top