মুখ ছাড়া জন্ম নেওয়া শিশুটির আজ ৯ম জন্মদিন | daily-sun.com

মুখ ছাড়া জন্ম নেওয়া শিশুটির আজ ৯ম জন্মদিন

ডেইলি সান অনলাইন     ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৭:২২ টাprinter

মুখ ছাড়া জন্ম নেওয়া শিশুটির আজ ৯ম জন্মদিন

জন্ম বিকৃতি নিয়ে কেউ যদি জন্মায়, তাহলে সেই শিশুর বাঁচার লড়াই যে মারাত্মক কঠিন হয়, তা বলাই বাহুল্য। বহু ক্ষেত্রে শিশুর বাবা-মা শৈশবে পরিস্থিতি উন্নতির মারাত্মক চেষ্টা করলেও, সেই চেষ্টা বেশিরভাগ সময়ই বিফলে যায়। এমনই মুখ ছাড়া জন্ম নেওয়া বাচ্চা বাধা বিঘ্ন পেরিয়ে পালন করল ৯ বছরের জন্মদিন

 

মেয়েটি জন্মের সঙ্গে সঙ্গে চিকিত্সকরা জানিয়ে দেন, এই বাচ্চার বাঁচার আশা খুবই কম। মেয়েটি একটি বিরল রোগে আক্রান্ত। রোগটির নাম ট্রিচার কলিনস সিনড্রোম। এই রোগে আক্রান্ত হলে, একজনের মুখে ৪০টি হাড় তৈরি হয় না। এরফলে চোখ, ঠোঁট এবং নাক তৈরি হতে পারে না।

 

প্রসঙ্গত, শিশুটির জন্মের পর চিকিত্সকরা তাকে খাওয়াতেও অস্বীকার করেন। তাঁরা স্পষ্ট ভাষায় বলে দিয়েছিলেন বাড়িতে গিয়ে শিশুটির শেষমুহূর্তের জন্যে মনকে প্রস্তুত করতে।

 

 

তবে সম্প্রতি সেই মেয়েরই নয় বছরের জন্মদিন পালন করলেন তার বাবা-মা। কীভাবে মেয়েটি এতদিন বাঁচল, এখন ডাক্তারদের কাছে সেটাও দ্বন্দ্বের। বাচ্চাটির বেঁচে থাকার জন্যে চিকিত্সকরা সমস্ত ক্রেডিট মেয়েটির বাবা-মাকেই দিয়েছেন। কারণ, তাঁদের যত্নই মেয়েটিকে এতদিন বাঁচিয়ে রেখেছে।  

 

 

তবে মেয়েকে বাঁচাতে, সুস্থ জীবন দিতে বদ্ধপরিকর ভিটোরিয়ার বাবা-মা। এরজন্যে তাঁরা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে টাকা সংগ্রহও করছেন। জানা গিয়েছে, ৫০, ০০০ মানুষের মধ্যে মাত্র একজনই এই বিরল রোগে আক্রান্ত হয়।এরমধ্যে মেয়েটির ওপর আটটি অস্ত্রোপচার করা হয়েছে, তার চোখ, নাক ও মুখ আবার নতুন করে তৈরি করতে। এখনও কেউ জানেন না ভিটোরিয়া ঠিক কতদিন বাঁচবে, তবে মেয়ের পাশে সবসময় থেকে লড়াই করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তার বাবা-মা। এমনকি সমাজের বিভিন্ন মানুষ মেয়ে সম্পর্কে নানা খারাপ মন্তব্য করলেও তাঁরা পিছিয়ে আসেননি। সত্যিই তাঁদের এই লড়াইকে প্রত্যেকের কুর্ণিশ জানানোই উচিত্।

 


Top