ডোকলাম থেকে বাসিন্দাদের সরাচ্ছে ভারত, সেনা সংঘর্ষের আগাম ইঙ্গিত | daily-sun.com

ডোকলাম থেকে বাসিন্দাদের সরাচ্ছে ভারত, সেনা সংঘর্ষের আগাম ইঙ্গিত

ডেইলি সান অনলাইন     ১১ আগস্ট, ২০১৭ ১৬:৪২ টাprinter

ডোকলাম থেকে বাসিন্দাদের সরাচ্ছে ভারত, সেনা সংঘর্ষের আগাম ইঙ্গিত

 

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অরুণ জেটলির মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিল চীন। চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যমের দাবি, অরুণ জেটলির মন্তব্য থেকেই স্পষ্ট, যে ভারত গোপনে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে। জেটলির সেই মন্তব্যকে যুদ্ধের হুঁশিয়ারি বলে দাবি করেছেন চীনা মিডিয়া।


জেটলি মন্তব্য করেছিলেন, "ভারতীয় সেনা নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে কোনও চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। ৬২-এর যুদ্ধ থেকে শিক্ষা নিয়ে এখন যে কোনও চ্যালেঞ্জের জবাব দিতে ভারতীয় সেনা পুরোপুরি প্রস্তুত। "


এরপরই চীনা প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের উদ্ধৃত করে দেশটির সংবাদমাধ্যমের দাবি, তাদের আশঙ্কা ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্য দুই দেশের সেনার মধ্যে সংঘাতেরই সম্ভাব্য ইঙ্গিত দিচ্ছে।  


সাংহাই ইনস্টিটিউট ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের এশিয়া-প্যাসিফিক স্টাডিজ বিভাগের প্রধান ঝাও গেনচেং বলছেন, "সম্প্রতি ভারতের যত রাজনৈতিক নেতা চীনের বিরুদ্ধে বিষোদগার করেছেন, তাদের মধ্যে জেটলির মন্তব্যই কট্টরতম। নয়াদিল্লির এই বার্তা বেইজিংকে সেনা সংঘর্ষের আগাম ইঙ্গিত বলে ধরা যেতে পারে। "


গত দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে ডোকলামে মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে ভারত ও চীনের সেনা। ‘নন-কমব্যাট মোড’-এ থাকলেও ছোটখাটো সংঘর্ষের খবর আসছে মাঝেমধ্যেই। চীনা মিডিয়ার দাবি, ভারতকে চাপে রাখতে চীনের উচিত অবিলম্বে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকা।


এদিকে চুপ করে বসে নেই ভারতও। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার থেকেই ডোকলাম সীমান্তের কাছের গ্রামগুলি থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ডোকলাম থেকে মাত্র ৩৫ কিলোমিটার দূরে নাথাং থেকে শতাধিক গ্রামবাসীকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

 


Top