গুয়ামে মার্কিন ঘাঁটিতে আঘাত হানতে ১৪ মিনিট লাগবে উ. কোরিয়ার | daily-sun.com

গুয়ামে মার্কিন ঘাঁটিতে আঘাত হানতে ১৪ মিনিট লাগবে উ. কোরিয়ার

ডেইলি সান অনলাইন     ১১ আগস্ট, ২০১৭ ১৬:৩২ টাprinter

গুয়ামে মার্কিন ঘাঁটিতে আঘাত হানতে ১৪ মিনিট লাগবে উ. কোরিয়ার

 

মাত্র ১৪ মিনিটেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণাধীন প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ গুয়ামে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানতে সক্ষম বলে জানিয়েছে দ্বীপটির নিরাপত্তায় নিয়োজিত বাহিনীর একজন মুখপাত্র। জিনা গামিন্দে নামে ওই মুখপাত্র বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, যদি উত্তর কোরিয়া তাদের ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে তাহলে গুয়ামে আঘাত হানতে তা মাত্র ১৪ মিনিট সময় নিবে।


যুক্তরাষ্ট্রের উপর যেকোন হুমকির আগ্রাসী জবাব দেয়া হবে- মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পরই যুক্তরাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণাধীন প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ গুয়ামে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর পাল্টা হুমকি দেয় উত্তর কোরিয়া।


দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ জানায়, কৌশলগতভাবে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ একটি ঘাঁটি গুয়ামে মাঝারি থেকে দূরপাল্লার রকেট নিক্ষেপ করার পরিকল্পনা করছে উত্তর কোরিয়া। এই বিবৃতির পর দুই দেশের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়েছে।


হাওয়াইয়ের ৪,০০০ মাইল পশ্চিমে ও উত্তর কোরিয়ার ২২০০ মাইল দক্ষিণ পশ্চিমে প্রশান্ত মহাসাগরের অবস্থিত গুয়াম দ্বীপ। ১ লাখ ৬৩ হাজার লোক এখানে বসবাস করে। এখানে যুক্তরাষ্ট্রের একটি কৌশলগত সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। মার্কিন নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর ৬ হাজার সৈন্য এখানে অবস্থান করছে।


১৮৯৮ সালের স্পেন-আমেরিকা যুদ্ধের পর স্পেনের কাছ থেকে মার্কিন নৌবাহিনী দ্বীপটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়ার পর গুয়াম যুক্তরাষ্ট্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ সামরিক ঘাঁটিতে পরিণত হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শুরুতে ১৯৪১ সালে পার্ল হারবার আক্রমণ করার পর এটি দখল করে নেয় জাপান। ১৯৪৪ সালে এটি পুনরায় যুক্তরাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। এখান থেকেই জাপান ও কোরীয় উপদ্বীপে নিয়মিত টহল দেয় মার্কিন সাবমেরিন ও জঙ্গিবিমানগুলো। দ্বীপটিতে থাড ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাও মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

 


Top