ইবিএল ও রোটারি ইন্টারন্যাশনালের পার্টনারশিপ মাস্টারকার্ডের কো-ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ড চালু | daily-sun.com

ইবিএল ও রোটারি ইন্টারন্যাশনালের পার্টনারশিপ মাস্টারকার্ডের কো-ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ড চালু

ডেইলি সান অনলাইন     ৭ আগস্ট, ২০১৭ ২০:৫০ টাprinter

ইবিএল ও রোটারি ইন্টারন্যাশনালের পার্টনারশিপ মাস্টারকার্ডের কো-ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ড চালু

 

 সম্প্রতি ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড (ইবিএল) ও রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ মাস্টারকার্ডের সাথে পার্টনারশীপের মাধ্যমে রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সদস্যদের জন্য একটি এক্সক্লুসিভ কো-ব্র্যান্ডেড মাস্টারকার্ড টাইটানিয়াম কার্ড চালু করেছে।

 

নানা বৈশিষ্ট্যমন্ডিত এই কো-ব্র্যান্ডেড ইবিএল-রোটারি মাস্টারকার্ড টাইটানিয়াম কার্ডে রয়েছে দারূণ সব সুযোগ-সুবিধা। এসব সুবিধার মধ্যে আছে: প্রথম বছরে এই কার্ড ইস্যু করার সময়ে রোটারি ক্লাবের সদস্যদের কাছ থেকে কোনো ফি নেওয়া হবে না। একইভাবে প্রথম দু’ বার সাপ্øিমেন্টারি কার্ড ইস্যু করার ক্ষেত্রেও কোনো ফি নেওয়া হবে না। অর্থাৎ রোটারি ক্লাবের সদস্যরা প্রথম বার কার্ড নেওয়া এবং এরপরে প্রথম দুটি সাপ্লিমেন্টারী কার্ড বিনামূল্যে পাবেন; রোটারি ক্লাবের সদস্যরা একটি কার্ডে বছরে ১৮ বার লেনদেন করলে পরের বছরে কার্ড নবায়নে কোনো ফি লাগবে না। অর্থাৎ পরের বছরে নবায়ন ফি পুরোটাই মাফ। প্রথমবার কার্ড চেক বুকও বিনামূল্যে পাবেন তাঁরা। এ ছাড়া সর্বনিন্ম ১৫ দিন থেকে সর্বোচ্চ ৪৫ দিন পর্যšত এই কার্ডের বিপরীতে করা লেনদেনের জন্য সুদ দিতে হবে না। মাস্টারকার্ডের এই কার্ডে রয়েছে অনন্য ও অসাধারণ সব বৈশিষ্ট্য। এটি ১৭০০-এর বেশি পার্টনার আউটলেটের পণ্য-সেবায় মূল্যছাড় পাবেন। বাংলাদেশে মাস্টারকার্ডের কার্ড ব্যবহারে কক্সবাজার ও সিলেটের শীর্ষস্থানীয় হোটেল-রিসোর্টগুলোতে বোগো অফার অর্থাৎ হোটেলে অতিরিক্ত রাত বিনামূল্যে থাকার সুবিধা উপভোগ করা যায়।

 

 

কো-ব্র্যান্ডেড ইবিএল-রোটারি মাস্টারকার্ড টাইটানিয়াম ক্রেডিট কার্ডধারীরা ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইবিএল স্কাইলাউঞ্জে ঢোকার সুযোগ পাবেন। আগের যেকোনো কার্ডের তুলনায় এই কার্ডে ইনস্টলমন্টের সুবিধা সবচেয়ে সহজ। এই কার্ড ব্যবহারে বা এটি দিয়ে কোনো কেনাকাটা করলে এর বিপরীতে অত্যন্ত সহজ কিস্তিতে টাকা পরিশোধ করার সুযোগ পাওয়া যাবে।

 

এ প্রসঙ্গে রোটারি ক্লাবের আর টি অ্যান, মামুন আকবর, ভাইস প্রেসিডেন্ট ২০১৭-১৮, রোটারি ক্লাব বলেন,  রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সদস্যরা এখন থেকে কো-ব্র্যান্ডেড ইবিএল-রোটারি মাস্টারকার্ড টাইটানিয়াম ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অত্যন্ত সহজ উপায়ে ও কোনো ঝামেলা ছাড়াই পণ্য-সেবা কিনতে পারবেন। তাঁদের জন্য এই কার্ড চালু করতে পেরে আমরা অত্যšত আনন্দিত। আশা করি, উৎসাহ-উদ্দীপনার মাধ্যমে তাঁরা ব্যাপক সুবিধা সম্বলিত এই কার্ড ব্যবহার করে খুবই উপকৃত হবেন।’’

 

ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) কনজ্যুমার ব্যাংকিংয়ের প্রধান নাজিম আনোয়ার চৌধুরী বলেন, রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ও মাস্টারকার্ডের মতো মর্যাদাশীল দুটি প্রতিষ্ঠানের সাথে নতুন এই পার্টনারশীপের ফলে আমরা অত্যšত উচ্ছ্বসিত। আমরা বিশ্বাস করি, এই পার্টনারশীপ আমাদের সেবায় বৈচিত্র্য বেড়েছে এবং এটি আমাদের অনেক দূর এগিয়ে নেবে।’’

 

মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার জনাব সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, আমরা সব সময়ই যথাসম্ভব সর্বাধিক সংখ্যক কার্ডহোল্ডারদের চাহিদার কথা বিবেচনা করে বৈচিত্র্যময় ও সর্বোত্তম সেবা নিয়ে আসতে প্রতিশ্রতিবদ্ধ; যাতে তাঁরা বিভিন্ন ধরনের সেবা থেকে নিজেদের চাহিদা অনুযায়ী বেছে নিতে পারেন। আমরা বিশ্বাস করি, ইবিএল ও রোটারি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সাথে পার্টনারশীপের মাধ্যমে চালু করা নতুন এই কো-ব্র্যান্ডেড টাইটানিয়াম মাস্টারকার্ড আমাদের লক্ষ্য অর্জনে অনেক দূর এগিয়ে নেবে।’’

 

 

জার্মানির মাননীয় রাষ্ট্রদূত ড. থমাস পিনজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।  বিশেষ অতিথি হিসেবে রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ৩২৮১-এর জেলা গভর্নর ২০১৭-১৮ আর টি এন এফ এইচ আরিফ উপস্থিত ছিলেন । এছাডাও আর টি এন জাওয়াহেরুল গনি, সভাপতি ২০১৭-১৮, রোটারি ক্লাব অব ঢাকা; ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) হেড অব ডিরেক্ট বিজনেস জনাব এম. খোরশেদ আনোয়ার এবং মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের ডিরেক্টর গীতাঙ্ক ডি দত্তসহ তিন প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


Top