অফিসে বেশি সময় কাটালে বাড়ে স্বাস্থ্যঝুঁকি | daily-sun.com

অফিসে বেশি সময় কাটালে বাড়ে স্বাস্থ্যঝুঁকি

ডেইলি সান অনলাইন     ১৫ জুলাই, ২০১৭ ১৫:৫৩ টাprinter

অফিসে বেশি সময় কাটালে বাড়ে স্বাস্থ্যঝুঁকি

 

দিনের অনেকটা সময়ই কেটে যায় কাজের জায়গায়। বসের সুনজরে থাকতে, কাজ থাকুক বা না থাকুক, অনেকেরই প্রবণতা থাকে অফিসে বেশি সময় থেকে যাওয়ার। বছরের শেষে এতে হয়তো অ্যাসেসমেন্ট ভাল হবে, কিন্তু অজান্তে যে শারীরিক বিপদ ডেকে আনছেন, তা বোঝেন ক’জন!

 

সম্প্রতি ‘ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন’-এর অধ্যাপক, মিকা কিভিমাকি, তাঁর গবেষণায় বলেছেন, অফিসে বেশি সময় কাটালে শরীরিক নানা অসুখ দেখা দেয়। স্ট্রেস, ডিপ্রেশনের পাশাপাশি দেখা দেয় কাঁধ, কোমর, হাতের ব্যথা। সারাক্ষণ কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হয় দৃষ্টিশক্তিও। মিকা কিভিমাকি এবার এই তালিকার সঙ্গে যোগ করেছেন হৃদরোগ।

 

‘আর্ট্রিয়াল ফাইব্রিলেশন’ নামে এক ধরনের হার্টের অসুখের কথা বলেছেন অধ্যাপক মিকা কিভিমাকি। হার্ট বিট-এ অস্বাভাবিকতা এই অসুখের মূল উপশম। পরবর্তী সময়ে যা স্ট্রোক বা হার্ট ফেলের মতো বড় আকার ধারণ করতে পারে। 

 

‘ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নাল’ নামে এক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে অধ্যাপক মিকা কিভিমাকির এই গবেষণা। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুয়ায়ী, ৮৫৪৯৪ জন মহিলা-পুরুষের উপরে পরীক্ষানিরীক্ষা চালানো হয়। যুক্তরাজ্য, ডেনমার্ক, সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের বাসিন্দারা ছিলেন এই গবেষণায়। গত ১০ বছর ধরে সমীক্ষা চালিয়েছেন অধ্যাপক, এবং তাতে উঠে এসেছে আর্ট্রিয়াল ফাইব্রিলেশনের ১০০০এরও বেশি নতুন কেস। 

 

গবেষণায় উঠে আসা তথ্য অনুসারে, অধ্যাপক মিকা কিভিমাকির সংক্ষেপে বলতে চেয়েছেন যে, সপ্তাহে ৩৫ থেকে ৪০ ঘণ্টা কাজই যথেষ্ট। এ ছাড়াও, অবশ্যই খেয়াল রাখুন উপরোক্ত উপসর্গগুলির দিকে।

 

 


Top