'মা‍'র উপর অত্যাচার ও বড় বোনকে যৌন হয়রানি করতেন বাবা' | daily-sun.com

'মা‍'র উপর অত্যাচার ও বড় বোনকে যৌন হয়রানি করতেন বাবা'

ডেইলি সান অনলাইন     ১৪ জুন, ২০১৭ ২০:১৯ টাprinter

'মা‍'র উপর অত্যাচার ও বড় বোনকে যৌন হয়রানি করতেন বাবা'

 

কলকাতার একটি গণমাধ্যমে জাতীয় পুরস্কার জয়ী চলচ্চিত্র পরিচালক উৎপলেন্দু চক্রবর্তীর অসুস্থতা নিয়ে লেখা হয়। পরিচালকের অসুস্থতা, অর্থাভাব নিয়ে নানান কথা উঠে আসে।

‌যাতে নাম জড়ায় তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী শতরূপা সান্যাল ও মেয়ে ঋতাভরী চক্রবর্তীর। প্রশ্ন ওঠে তাঁদের ভূমিকা নিয়ে।  

আর এরপরেই প্রকৃত বিষয়টি নিয়ে আনন্দবাজারের কাছে মুখ খুলেছিলেন উৎপলেন্দু চক্রবর্তীর প্রাক্তন স্ত্রী শতরূপা। আর এবার নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে বাবার সম্পর্কে তাঁর ছেলেবেলা সম্পর্কে  মুখ খুললেন অভিনেত্রী ঋতাভরীও। উঠে এসেছে বিস্ফোরক সব তথ্য।

 

ঋতাভরী তাঁর ফেসবুক পোস্টে উৎপলেন্দু চক্রবর্তীকে তাঁর ‍‘বায়োলজিক্যাল ফাদার‍’ অর্থাৎ জন্মসূত্রে পিতা ছাড়া আর কোনও স্থান দিতে চান নি। ঋতাভরী জানান, ‍’আমার বাবা, তাঁর মার উপর দিনের পর দিন মদ খেয়ে অত্যচার করত। ‌যেকারণে সংসার ভাঙে। তখন আমার বয়স মাত্র ৪।

আর এরপর  মা শতরূপা একা হাতে দুই বোনকে মানুষ করেন। ‍

 

ঋতাভরী লিখেছেন, ‌‍যখন বিবাহবিচ্ছেদের মামলা চলছিল, তখন  বাবা এটা বলতেও বাকি রাখেন নি ‌যে ওনার ছোট মেয়ে অন্যের সন্তান ওনার নয়। এমনকী মদ্যপ অবস্থায়  বাবা, ছ’বছরের বোনের অন্তর্বাস ধরে টানতেন‍।

শৈশবের তিক্ত স্মৃতি কথা জনিয়ে ঋতাভরী আরও বলেন, বাবা (উৎপলেন্দু চক্রবর্তী) ‌যিনি খবরের কাগজে আমাকে ওনার মেয়ে বলে উল্লেখ করেছেন সেটা তিনি আমাকে  কখনও বলেননি। আজকে হঠাৎ আমি তাঁর মেয়ে।   তবে উনি অসুস্থ আছেন ‌জেনে খারাপ লাগল, তবে আরও খারাপ লাগল ওনি তাঁর আরেক স্ত্রী ও ছেলেদের কথা বলেন নি, সব দায়িত্ব আমাদের ঘাড়ে চাপিয়েছে‌ন।

 


Top