বড়হাটে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ফের শুরু, গুলির শব্দ | daily-sun.com

বড়হাটে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ফের শুরু, গুলির শব্দ

ডেইলি সান অনলাইন     ১ এপ্রিল, ২০১৭ ১১:২০ টাprinter

বড়হাটে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ফের শুরু, গুলির শব্দ

 

মৌলভীবাজার শহরের বড়হাটে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ ফের শুরু হয়েছে। আজ শনিবার (১ এপ্রিল) সকাল ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে সোয়াত টিম আস্তানা লক্ষ্য করে চার রাউন্ডের মতো গুলি ছোড়ে।

তবে এসময় জঙ্গি আস্তানা থেকে কোনো গুলি ছোড়ার শব্দ পাওয়া যায়নি।


এদিকে অভিযানে ড্রোন ব্যবহারের মাধ্যমে জঙ্গিদের অবস্থান শনাক্ত এবং গোলাবারুদ ও অস্ত্রের মজুদ সম্পর্কে ধারণা নেয়া হচ্ছে। এর আগে সকাল ৯টার দিকে সোয়াত, র‌্যাবসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলের আশপাশে অবস্থান নেন। পরে সকাল ১০টার দিকে সিলেট রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি কামরুল হাসান সেখানে উপস্থিত হন। এরপর সোয়া দশটার দিকে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে অন্যদের সঙ্গে যোগ দেন।


অভিযান শুরুর আগে মৌলভীবাজার শহরে সব ধরনের ভারী ও হালকা যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। শহরের প্রতিটি পয়েন্ট এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া জঙ্গি আস্তানার আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা অব্যাহত রয়েছে।


এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় আলো স্বল্পতার কারণে বড়হাটের এই অভিযান স্থগিত করা হয়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেট-মৌলভীবাজারের আঞ্চলিক মহাসড়কের বড়হাট এলাকায় ব্রিফিংকালে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, 'বড়হাট জঙ্গি আস্তানাটি অন্য জঙ্গি আস্তানা থেকে জটিল। এর মধ্যে আলো স্বল্পতায় অভিযান স্থগিত করা হয়েছে। ’
 

উল্লেখ্য, গত বুধবার ভোর সাড়ে ৫টা থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকার একটি দোতলা বাড়ি এবং সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের নাসিরপুরের একটি বাড়িতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পায় আইনশৃংখলা বাহিনী। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) বিকালে মৌলভীবাজারের নাসিরপুরে জঙ্গি আস্তানায় সোয়াতের 'অপরাশেন হিটব্যাক' শেষ হয়। এতে এক পুরুষ, দুই নারী ও চার শিশুসহ সাতজন নিহত হয়।

 


Top